পাকিস্তানে মানসিক ভাবে নির্যাতন করা হয়েছে অভিনন্দনকে?

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে বন্দি থাকা অবস্থায় ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমান ‘মানসিক নির্যাতনে’র শিকার হয়েছিলেন বলে দাবী ভারতের।

শনিবার ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমন শনিবার ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে দেখতে যান। এসময় অভিনন্দনের সঙ্গে বেশ কিছুটা সময় কথা বলেন তিনি। সে সময় নির্মলা সীতারমনকে অভিনন্দন নিজেই একথা জানান বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

সূত্র জানায়, অভিনন্দনের সাহস ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞার জন্য পুরো দেশ তাকে নিয়ে গর্বিত বলে প্রতিরক্ষামন্ত্রী তাকে জানান। পাকিস্তানে ৬০ প্রায় ৬০ ঘণ্টা আটক থাকা অভিনন্দন এ সময় তার আটককালীন অবস্থা প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে অবহিত করেন। পাকিস্তানে আটক থাকা অবস্থায় অভিনন্দন মানসিক নির্যাতনের শিকার হলেও তিনি এখনও মানসিকভাবে খুবই শক্ত এবং তার মনোবলও বেশ ভালো অবস্থায় রয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, নিজের যুদ্ধবিমান ভূপাতিত হয়ে ধরা পড়ার আগে পাকিস্তান বিমান বাহিনীর একটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করা পাইলট অভিনন্দনকে দেখতে শনিবার ভারতের বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল বি এস ধানোয়াসহ বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হাসপাতালে গিয়েছিলেন। তাদের কাছেও অভিনন্দন পাকিস্তানে বন্দি থাকা অবস্থায় মানসিক নির্যাতনের শিকার হওয়ার কথা জানান বলে ওই সূত্র উল্লেখ করে।

নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে হামলা চালানোর সময় বিমান ভূপাতিত হয়ে আটক হওয়ার পর ভারতীয় বিমান বাহিনীর সদস্য উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ‘শান্তির নিদর্শন’ হিসেবে শুক্রবার রাতে ফিরিয়ে দেয় পাকিস্তান। পাঞ্জাবের ওয়াঘা-আত্তারি সীমান্ত দিয়ে অভিনন্দনকে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ। এরপর রুটিন মেডিক্যাল চেক-আপের জন্য সেখান থেকে অভিনন্দনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেই হাসপাতালেই শনিবার তাকে দেখতে যান প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

print

LEAVE A REPLY