৮ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে বার্সাকে বাঁচালেন মেসি

ভিয়ারিয়ালের মাঠে প্রথমে জয়ের আশা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত হারতে বসেছিল লীগ লিডার বার্সেলোনা। কিন্তু বদলি হিসেবে নেমে মেসির শেষ সময়ের গোলে ভিয়ারিয়েলের বিপক্ষে পরাজয় এড়িয়েছে বার্সেলোনা। মঙ্গলবার রাতে আট গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ড্র হয় ৪-৪ গোলে।

ম্যাচের ১২ মিনিটে দুই ব্রাজিলিয়ানের নৈপুণ্যে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ডান দিক দিয়ে রক্ষণ ভেঙে ডি-বক্সে ঢুকে গোলমুখে বল বাড়ান মালকম। অনায়াসে আলতো টোকায় গোলটি করেন কৌতিনিয়ো। এর ৪ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মালকম। আর্তুরো ভিদালের ক্রসে হেডে বল ঠিকানায় পাঠান এ মৌসুমের শুরুতে কাম্প নউয়ে যোগ দেওয়া এই য়ে যোগ দেওয়া এই ফরোয়ার্ড।
খানিক পরই ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। তবে কৌতিনিয়োর চিপ শট পোস্টে বাধা পায়।

দু্ই গোলে এগিয়ে থাকার স্বস্তি অবশ্য বেশিক্ষণ থাকেনি বার্সেলোনার। খেলার ধারার বিপরীতে ২৩তম মিনিটে ব্যবধান কমান সামুয়েল। সতীর্থের থ্রু পাস পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকে তার নেওয়া শট পোস্টে বাধা পায়। তবে ফিরতি বল কোনাকুনি শটে জালে পাঠান নাইজেরিয়ার এই মিডফিল্ডার।

দ্বিতীয়ার্ধে সম্পূর্ণ ভিন্ন এক ভিয়ারিয়েলকে মাঠে পায় দর্শক। দারুণ আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে বার্সার রক্ষণভাগে ত্রাস সৃষ্টি করে দলটি। ফলাফলটাও সঙ্গে সঙ্গেই পেয়ে যায়। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যেই সমতা ফেরায় ভিয়ারিয়েল। ম্যাচের ৫০ মিনিটে স্যামুয়েলের বাড়ানো বলে অসাধারণ এক গোল করে কার্ল টোকো একাম্বি স্কোরলাইন ২-২ করেন।

৬১ মিনিটে কৌতিনিয়োর বদলি হিসেবে মেসিকে মাঠে নামান কাতালান কোচ ভ্যালভার্দে। কিন্তু এক মিনিট পর উল্টো আরো এক গোল খেয়ে বসে বার্সেলোনা। ভিসেন্তে ইবোরা স্কোর করে ৩-২ গোলে এগিয়ে দেন ভিয়ারিয়েলকে। ম্যাচের ৮০ মিনিটে বার্সা সমর্থকদের বুকে কাঁপন ধরিয়ে ফেলেন কার্লোস বাক্কা। সতীর্থের লম্বা করে বাড়ানো বলে গোল করে দলকে ৪-২ ব্যবধানে এগিয়ে দেন বাক্কা।

ম্যাচের  শেষ মুহূর্তে নিজের জাদু দেখান মেসি। ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে ফ্রি-কিক পায় বার্সা। মেসির চোখ ধাঁধানো এক ফ্রি-কিক সবাইকে মন্ত্রমুগ্ধ করে জাল খুঁজে নিলে ব্যবধান কমে ৪-৩ হয়। অতিরিক্ত সময়ে ভিয়ারিয়ালের অবিশ্বাস্য জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয়। ৯৩ মিনিটে বার্সেলোনার পাওয়া কর্নার কিকে উড়ে আসা বলে লুইস সুয়ারেজ দারুণ এক গোল করে স্কোরলাইনটা ৪-৪ করেন।

ড্র করে পয়েন্ট হারালেও ৩০ ম্যাচে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ণ রেখেছে বার্সসেলনা। আর ৬২ পয়েন্ট নিয়ে তাদের ঠিক পরেই আছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ।

print

LEAVE A REPLY