ওয়ানডে এবং টি-টুয়েন্টিতে বাদ পড়ছে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে

Battingপ্রয়োজন এবং ক্রিকেটকে আকর্ষণীয় করে তোলার লক্ষ্যে বিভিন্ন সময় খেলাটির বিভিন্ন আইন এবং নিয়মে নানা পরিবর্তন আনা হয়েছে। এবার আরও একবার পরিবর্তন আনা হচ্ছে ওয়ানডে এবং টি২০ ক্রিকেটের নিয়ম-কানুনে। আইসিসি কর্তৃক গঠিত একটি কমিটি ওয়ানডে এবং টি২০তে ব্যাটিং পাওয়ার প্লে তুলে দেওয়ার ব্যাপারে সুপারিশ করেছে।

শুধু ব্যাটিং পাওয়ার প্লেই তুলে দেওয়া নয়, ক্রিকেটের উন্নতির লক্ষ্যে আরও কয়েকটি নিয়ম পরিবর্তনের সুপারিশ করেছে কমিটিটি। ৪১ থেকে ৫০তম ওভার পর্যন্ত ৩০ গজ বৃত্তের বাইরে ৫জন ফিল্ডার রাখার নিয়ম এবং প্রতিটি ‘নো’ বল হলেই ফ্রি হিট চালুর সুপারিশ করেছে আইসিসির উল্লিখিত কমিটি। সপ্তাহজুড়ে ভারতের মুম্বাইতে ক্রিকেটের সম্ভাব্য নিয়ম পরিবর্তন কিংবা পরিবর্ধনের বিষয়ে বৈঠক করে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি।

সেই কমিটিতেই পাওয়ার প্লে, ৪১-৫০ ওভারের মধ্যে বৃত্তের বাইরে ৫জন ফিল্ডার রাখা এবং প্রতিটি নো বলে ফ্রি হিটের নিয়ম পরিবর্তনের ব্যাপারে সুপারিশগুলো তৈরী করে। ক্রিকেট কমিটির এই সুপারিশগুলো পাশ করা হবে আইসিসির চিফ এক্সিকিউটিভ কমিটিতে (সিইসি)। পাওয়ার প্লে আর ফিল্ডিং নিয়ন্ত্রনের বিষয়ে বিদ্যমান আইনের দরুন আইসিসির ক্রিকেট কমিটি মনে করছে, ফিল্ডিং করা দল সব সময়ই নিজেদের ডিফেন্ড করার সুযোগ পায় কম।

নতুন সুপারিশকৃত নিয়মে প্রথম ১০ ওভারের জন্য ২ জন, পরের ৩০ ওভারের জন্য ৪জন এবং শেষ ১০ ওভারের জন্য ৫জন ফিল্ডার বৃত্তের বাইরে রাখার কথা বলা হয়েছে। আগের নিয়মে প্রতিটি ‘নো’ বলেই ফ্রি হিট কল করতে পারতেন না আম্পায়াররা। শুধু বোলার যে বলটি ডেলিভারি দিতে গিয়ে ক্রিজের লাইন অতিক্রম করে ফেলতেন, সেটিতেই ফ্রি হিট ডাকতে পারতেন আম্পায়াররা। সুপারিশকৃত নতুন নিয়মে ‘নো’ বল হলেই ফ্রি হিট ডাকার সুপারিশ করা হয়েছে।

print

LEAVE A REPLY