চাঁদে বিধ্বস্ত হলো ইসরায়েলের মহাকাশযান

চাঁদের পৃষ্ঠে বিধ্বস্ত হলো তাদের মহাকাশযান। যার কারনে চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদে মহাকাশযান অবতরণের চেষ্টা চালাতে গিয়ে ব্যর্থ হলো ইসরায়েল।

আজ শুক্রবার সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া যায়। সেই প্রতিবেদনে বলা হয়, বেরেশিট নামে ওই মহাকাশযানটি চাঁদে অবতরণের চেষ্টা চালাতে গিয়ে ইঞ্জিনের কারিগরি সমস্যার কারণে চাঁদের পৃষ্ঠেই বিধ্বস্ত হয়।

চাঁদের বিভিন্ন ছবি তোলা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোই ছিল এই মহাকাশযান পাঠানোর মিশন। কিন্তু সেই মিশন পূরণ হলো না ইসরায়েলের। সাত সপ্তাহ যাত্রা শেষে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৫ কিলোমিটারে শেষ কক্ষপথে পৌঁছানোর চেষ্টা চালিয়েছিল মহাকাশযানটি।

কিন্তু এরপর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পরই কমান্ড সেন্টারে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তার কিছুক্ষণ পরেই ইসরায়েল এয়ারস্পেস ইন্ডাস্ট্রির স্পেস বিভাগের ম্যানেজার অফের ডরন বলেন, ‘আমরা মহাকাশযান অবতরণের চেষ্টা চালাতে ব্যর্থ হয়েছি।’

এর আগে রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও চীন চাঁদে মহাকাশযান পাঠাতে সফল প্রচেষ্টা চালিয়েছিল। সেই তালিকায় চতুর্থ দেশ হিসেবে নিজেদের নাম লেখাতে চেয়েছিল ইসরায়েল।

এ বিষয়ে ইসরাইলের চন্দ্র অভিযান প্রকল্পের প্রধান মরিস কাহন বলেন, ‘আমরা সফল হইনি, তবে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। আমি মনে করি, আমরা যতটুকুই করেছি, তা সত্যিই অসাধারণ। এ জন্য আমরা গর্ব করতে পারি।’

উল্লেখ্য, গত  ২২ ফেব্রুয়ারি ফ্লোরিডার ক্যাপ ক্যানাভেরাল থেকে চাঁদের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে মহাকাশযানটি।

print

LEAVE A REPLY