‘ইমরানের বক্তব্য স্পর্শকাতরভাবে প্রকাশ করেছে ভারতীয় মিডিয়া’

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরাইশি বলেছেন, ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তব্য অপ্রাসঙ্গিকভাবে নেয়া হয়েছে। কারণ মোদির ব্যাপারে তার আপত্তির বিষয়টি সবারই জানা।

বৃহস্পতিবার বিদেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ইমরান খান বলেন, নরেন্দ্র মোদি যদি ফের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জয়ী হতে পারেন, তবে ইসলামাবাদের সঙ্গে নয়াদিল্লির শান্তি আলোচনা শুরু করার ভালো সুযোগ তৈরি হবে।

তার এ মন্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলো। সিনেটে পররাষ্ট্রবিষয়ক স্থায়ী কমিটিতে ভারতীয় গণমাধ্যমকে দোষারোপ করেছেন কোরাইশি। তিনি বলেন, ভারতীয় গণমাধ্যম সবকিছুকে স্পর্শকাতর করে প্রচার করে।

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রসঙ্গের বাইরে গিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে। তার মতে, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে ইমরান খানের আপত্তি ও ধারণা নিয়ে সবাই ভালোমতো জানে।

তিনি বলেন, নির্বাচনে কে জিতবে কিংবা হারবে তা নির্ধারণ করবে ভারতীয় জনগণ।

তবে সিনেটের পররাষ্ট্রবিষয়ক কমিটি ইমরান খানের সমালোচনা করে জানিয়েছে, মোদি হচ্ছে পাকিস্তানের জন্য বিপদ।

কমিটি জানায়, আপনি (কোরাইশি) বলেছেন- পাকিস্তানে আরেকবার হামলা চালাতে প্রস্তুত ভারত। তা হলে প্রধানমন্ত্রী (ইমরান খান) কেন বলেছেন, কেবল মোদি জিতলেই শান্তি আলোচনা হতে পারে। একটি রাষ্ট্রের সঙ্গে আরেকটির বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক হতে পারে, কোনো ব্যক্তির সঙ্গে নয়।

সূত্র: যুগান্তর

print

LEAVE A REPLY