পীযূষের উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন গণমাধ্যমগুলো কার স্বার্থে ছেপেছে?

হঠাৎ করেই কথিত জঙ্গিবাদ বিরোধী প্রচারের নামে দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিকগুলোতে উস্কানিমূলক একটি বিশাল বিজ্ঞাপন ছাপালেন আওয়ামীপন্থী সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অভিনেতা পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বিজ্ঞাপন ছাপার পর সারাদেশে শুধু সমালোচনার ঝড়ই বইছে না, সকল শ্রেণি পেশার মানুষের মধ্যে প্রচণ্ড ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। কারণ, বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম একটি মুসলিম দেশ। পীযূষের এই বিজ্ঞাপন মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে প্রচণ্ডভাবে আঘাত করেছে। কারণ, ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান এবং ধর্মীয় হুকুম-আহকাম পালনকে তিনি জঙ্গিবাদের লক্ষণ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

পীষূষের ভাষায়- যারা দাড়ি রাখে ও টাকনুর উপরে কাপড় পরিধান করে তারা জঙ্গি। যারা ধর্মীয় প্রচার করে তারা জঙ্গি। যারা ইন্টারনেটে কুরআন-হাদীস পড়ে তারা জঙ্গি। যারা বিয়ের সময় গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান করে না তারা জঙ্গি। ফেসবুকে যারা বেশি সময় দেয় তারা জঙ্গি। কুরআন-হাদীসের আলোচনা সভার আয়োজন যারা করে তারা জঙ্গি। এককথায়-যারা আল্লাহ ও তার রাসুলের নির্দেশনা অনুযায়ী জীবন-যাপন করে তারা সবাই জঙ্গি।

পীষূষের এই বিজ্ঞাপন নিসন্দেহে একটি চরম উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন। যা এদেশের শান্তিপ্রিয় মুসলমানদেরকে ক্ষেপিয়ে তুলতে পারে। সৃষ্টি করতে পারে বড় ধরণের সংঘাতময় পরিস্থিতির।

রাষ্ট্রের সংবিধান ও প্রেস কাউন্সিলের আইনে বলা আছে- যেসব সংবাদ মানুষের মধ্যে হিংসা সৃষ্টি করতে পারে, কোনো সংঘাতময় পরিস্থিতি তৈরি করতে সহায়তা করে, সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির আশঙ্কা থাকে সেই সব সংবাদ প্রকাশ নিষেধ।

কিন্তু, যেসব বিজ্ঞাপন সমাজে সংঘাত সৃষ্টি করতে পারে, কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করতে পারে, কোনো জাতি, গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়কে হেয় করতে পারে এবং মানুষের মধ্যে বিভক্ত সৃষ্টির আশঙ্কা থাকে সেই সব বিঞ্জাপন ছাপা কি আইনত সিদ্ধ? মোটেও না। দৈনিক পত্রিকাগুলোকে এসব উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন ছাপার অনুমোদন কখনো দেয়া হয়নি।

এখন প্রশ্ন হলো- দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিকগুলো কথিত জঙ্গিবাদ বিরোধী প্রচারের নামে এমন একটি উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন কিভাবে ছাপালো? শুধু কয়েক লাখ টাকার জন্য পত্রিকাগুলো এমন করেছে নাকি তাদেরও ভিন্ন উদ্দেশ্য রয়েছে।

দেশের ওলামায়ে কেরাম, বিশিষ্টজন ও সকল শ্রেণি পেশার মানুষ মনে করছেন, জাতীয় দৈনিকগুলো পরিকল্পিতভাবেই মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার জন্য এটা করেছে। তারা শুধু টাকার জন্য এই উস্কানিমূলক বিজ্ঞাপন ছাপেনি। ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত-ষড়যন্ত্রে পীষূষের সঙ্গে দৈনিক পত্রিকাগুলোও জড়িত হয়েছে।

তাদের মতে- এই দৈনিকগুলো পরিকল্পিতভাবে দেশের শান্তি শৃঙ্খলা নষ্ট করে দেশে একটি সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাচ্ছে।

উৎসঃ   অ্যানালাইসিস বিডি
print

LEAVE A REPLY