লাল সবুজের পতাকা হাতে এভারেস্ট ম্যারাথনে শিভ শংকর (ভিডিও)

হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানি: জার্মানির মিউনিখে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী শিব শংকর পাল এবার এভারেস্ট ম্যারাথনে যোগ দিয়ে তার ব্যক্তিগত ক্যারিয়ারের ১০৪ তম আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে অংশ নেওয়া পূর্ণ করলেন। ২৯ মে (বুধবার) নেপালের হিমালয় পাহাড়ে এভারেস্ট ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। এটি ছিল এভারেস্ট ম্যারাথনের ১৭তম আসর। লুকলা বেইজ ক্যাম্প থেকে শুরু হয়ে লামচি বাজার পর্যন্ত খাড়া পাহাড়ের পথ দিয়ে ৪২.২ কিলোমিটার দৌড়িয়ে সফল ভাবে অংশগ্রহন সম্পূর্ণ করেছেন জার্মানি প্রবাসী বাংলাদেশী শিব শংকর পাল।

আন্তর্জাতিক এই দৌড়বিদ গত বছর নভেম্বর মাসে নিউইয়র্কে ক্যারিয়ারের ১০০তম ম্যারাথনে অংশ নিয়েছিলেন। ২৯ মে এভারেস্ট ম্যারাথনে অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে ১০৪টি আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে লাল-সবুজ পতাকা নিয়ে দৌড়ালেন জার্মানি প্রবাসী এই বাংলাদেশি।

৫৩ বছর বয়সী এই আন্তর্জাতিক দৌড়বিদ জার্মানির মিউনিখ শহরের একজন সফল ব্যবসায়ী হলেও তার অদম্য শখ ছিল বিশ্বের সর্বোচ্চ এবং সবচেয়ে সাহসিক আন্তর্জাতিক ম্যারাথন এভারেস্ট ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করা। তিনিই একমাত্র বাংলাদেশী যিনি আন্তর্জাতিক ম্যারাথনে শতাধিক বার অংশগ্রহণের বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এভারেস্ট ম্যারাথনেও শিভ শংকর পাল একমাত্র বাংলাদেশী অংশগ্রহণকারী।

শিব শংকর পাল জানান, ম্যারাথনের মাধ্যমে বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশকে পরিচিত করানোই তার প্রধান লক্ষ্য। কঠোর পরিশ্রম এবং স্বপ্নই তাকে সফলতার দ্বার প্রান্তে পৌঁছে দিয়েছে।

শিব শংকর পাল ১৯৮৯ সালে জার্মানি পাড়ি জমান। ১৯৯৯ সালে জার্মানির মিউনিখে নিজে পাল ইলেক্ট্রো নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। ২০১৭ সালে জার্মানির মিউনিখ শহর কর্তৃপক্ষ পাঁচজন সফল ব্যবসায়ীকে বিশেষ পুরস্কারে ভূষিত করে। সে বছর পুরস্কার প্রাপ্ত পাঁচজন সফল ব্যবসায়ীর একজন বাংলাদেশি শিব শংকর পাল।

জার্মানি প্রবাসী সফল এই দৌড়বিদ এবং ব্যবসায়ী জার্মানির মিউনিখে স্ত্রী শিখা শংকর পাল, দুই ছেলে ম্যাক্সিমিলান ও দিব্য আর মেয়ে ত্রয়ীকে নিয়ে বসবাস করেন।

print

LEAVE A REPLY