‘জাফলংয়ের সরকারি স্থাপনায় অসামাজিক কার্যকলাপ চলে’

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার অন্তর্গত পর্যটনকেন্দ্র জাফলংয়ের সরকারি স্থাপনায় অসামাজিক কার্যকলাপ চলে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করেছিলাম সিলেটের জাফলংয়ে কোন স্থাপনা নেই। কিন্তু, খোঁজ নিয়ে দেখেছি সেখানে একটি সরকারি স্থাপনা রয়েছে। তবে সেটি পর্যটকদের জন্য ব্যবহৃত হয় না। এটিতে নিয়মিত বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ পরিচালিত হয়।’

রবিবার বিকালে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার বদরদি দাইমুদ্দিন এতিমখানা ও হাফিজিয়া মাদ্রাসায় ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী বলেন, আমি বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রালয়ের সচিব মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। বর্তমান স্থাপনাটি ভেঙে এখানে নতুন করে আরও স্থাপনা নির্মাণ করা হবে। এছাড়া পর্যটকদের সুবিধার্থে সব ধরনের আধুনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এখানে পর্যটকদের থাকার মতো একটিমাত্র হোটেল রয়েছে। যার ফলে দূর-দূরান্তের পর্যটকদের অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। তাই এখানে সরকারি উদ্যোগে রেস্ট হাউজ নির্মাণেরও পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘সিলেট অঞ্চলে নির্দিষ্টভাবে কোন পর্যটন কেন্দ্রকে উল্লেখ করলে ভুল হবে। এখানে প্রত্যেকটি জায়গাই পর্যটন স্পট, যা পর্যটকদের আকৃষ্ট করে। তাই সিলেটের পর্যটকদের জন্য একটি ‘ল্যান্ডিং স্টেশন’ নির্মাণ করা হবে। যেখান থেকে দূর থেকে আসা পর্যটকরা বিভিন্ন বিষয় জানতে পারবেন। সিলেটের পর্যটন স্পটগুলোতে ঘুরে বেড়াতে তাদের অনেক সুবিধা হবে।’

বি-প্র

print

LEAVE A REPLY