জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে বিশ্বযুদ্ধের ৫০০ কেজি ওজনের বোমা উদ্ধার

হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর পেরিয়ে গিয়েছে দীর্ঘ প্রায় ৭৫ বছর। কিন্তু এখনো জার্মানির আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে যুদ্ধের নানা চিহ্ন। এখনো প্রায়ই বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যায় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অবিস্ফোরিত বোমা। অতংকিত হতে শুনা যায় জনসাধারণকে।

এবার জার্মানির-ফ্রাঙ্কফুর্টে অবস্থিত ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের সদর দফতরের কাছে বিশাল আকৃতির একটি বোমার খোঁজ পাওয়া গেছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নিক্ষিপ্ত অবিস্ফরিত এই বোমাটির ওজন পাঁচশত কিলোগ্রাম। ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের সদর দফতরে কর্মরত সকল কর্মকর্তা কর্মচারী এবং আশেপাশে বসবাসকারী প্রায় ১৬০০০ হাজার বাসিন্দাকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ঝুঁকি এড়াতে রোববার বিকাল ৪ টা পর্যন্ত সংলগ্ন এলাকা মাইন নদীর তীর এবং সেন্ট্রাল ফ্রাঙ্কফুর্টের সকল ট্রেন ও বাস স্টেশন বন্ধ রাখা হয়েছিল এবং জনসাধারনের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

এছাড়াও মাত্র এক সপ্তাহ আগে পূর্ব জার্মানিতে প্রাপ্ত বিশাল আকৃতির বোমা কোন প্রকার ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই নিস্ক্রিও করা হয়েছে। গত মাসে রাজধানী বার্লিনে আলেক্সজান্দার প্লাটজে একশত কেজি ওজনের বোমা পাওয়া গিয়েছিল এবং প্রায় তিন হাজার বাসিন্দাকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছিল।

এর আগে ২০১৭ জার্মানির-ফ্রাঙ্কফুর্টে বিশাল আকৃতির একটি বোমার খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। ওই বোমাটির ওজন ছিল ১৪০০ টন বা প্রায় ১৩ লাখ কিলোগ্রাম। গোয়েথে ইউনিভার্সিটি ফ্রাঙ্কফুর্টের ভেষ্টেন্ড ক্যাম্পাসের নতুন ভবন নির্মাণের কাজ করতে গিয়ে এই বিশাল আকৃতির বোমাটি পাওয়া গিয়েছিল। স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানিয়েছিল, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বোমাটি ফেলেছিল ব্রিটিশ বিমান বাহিনী। কিন্তু তা বিস্ফোরিত হয়নি। ঝুঁকি এড়াতে সংলগ্ন এলাকা থেকে প্রায় ৭০ হাজার বাসিন্দাকে সেবার নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়েছিল প্রশাসন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নিক্ষিপ্ত প্রায় মিলিয়ন বোমার দশ শতাংশ অবিস্ফোরিত রয়েছিল, যা এখনো বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যায়।

print

LEAVE A REPLY