দেড়মাস ধরে ছেলে নিখোঁজ, ঈদ করছেন না বাবা মা

ঈদ সবার ঘরে আনন্দ নিয়ে এলেও টাঙ্গাইলের সখীপুরের কৈয়ামধু গ্রামের জাবেদ আলীর ঘরে ঈদ কষ্ট আর কান্না নিয়ে হাজির হচ্ছে।

কারণ দেড়মাস ধরে নিখোঁজ রয়েছেন তারে একমাত্র উপার্জনক্ষম প্রবাসী ছেলে আক্কাছ আলী শেখ (৩০)।

নিখোঁজ ছেলের শোকে নাওয়া-খাওয়া, ঘুম সবই কেড়ে নিয়েছে ওই পরিবারের, ঈদ উদযাপন তো দূরের কথা। পাগলের মতো দিন কাটছে আক্কাসের মা-বাবার। ছেলে বেঁচে আছে কিনা তাও জানা নেই তাদের।

অজ্ঞাত অপহরণকারীদের বিকাশে ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দিয়েও ছেলেকে ফিরে পায়নি তারা।

এ কথা বলে আক্কাসের ছবি বুকে ধরে কান্নায় মুর্চ্ছা যান মা হামিদা খাতুন।

জানা গেছে, গত ২৬ জুন বুধবার প্রবাসী বন্ধুর মালামাল পৌঁছে দিতে গিয়ে টাঙ্গাইলের করটিয়া বাইপাস এলাকা থেকে নিখোঁজ হয় আক্কাস।

এ ঘটনার পরদিন টাঙ্গাইল মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন জাবেদ আলী। ঘটনার পর প্রায় দেড়মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও আক্কাসের কোনো খোঁজ এনে দিতে পারেনি স্থানীয় পুলিশ।

পরিবার ও ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন মালামাল গ্রহণ করতে আক্বাসের ফোনে বার বার ফোন করেন করটিয়া বাইপাস এলাকার বিপ্লব নামের যুবক।

তার কাছে মালামাল পৌঁছে দেয়ার পর থেকেই অক্কাছের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

বিপ্লবের কারনেই আক্কাছ নিখোঁজ হয়েছে বলে তার বাবা-মায়ের অভিযোগ।

লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিপ্লবকে দুইবার আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেন পুলিশ। এর আগে মুক্তিপণ দাবী করলে বিকাশ নম্বরে ৪০ হাজার টাকা দেন আক্কাছের বাবা।

সেই নম্বর ট্যাগ করে এক মহিলা ও এক পুরুষকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা টাঙ্গাইল মডেল থানার এস.আই আজাহারুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় এক নারী ও এক পুরষকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে হাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলা তদন্ত চলছে। আক্কাসকে খুঁজে বের করতে ব্যাপক তৎপর রয়েছে পুলিশ।

juganor

print

LEAVE A REPLY