মোদির কাছে কাশ্মীর ‘দখলের’ ব্যাখ্যা চাইলেন মার্কিন আদালত

আগামী ২১ দিনের মধ্যে কাশ্মীর ‘দখল’ এবং সেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে করা মামলায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও তার সরকারের অন্যান্য সদস্যকে জবাব দিতে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত।

কাশ্মীর খালিস্তান রেফারেন্ডাম ফ্রন্ট ‘কাশ্মীর ইস্যুতে’ একটি অভিযোগ দাখিল করলে এই নির্দেশনা জারি করে টেক্সাসের হাউসটনে মার্কিন জেলা আদালত।

এ মামলায় ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিহ শাহ ও কানওয়াল জিৎ সিংকেও মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অবৈধ দখলদারিত্বের দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

দায়ের করা অভিযোগে ফ্রন্ট বলছে, গত ৫ আগস্ট হিন্দুত্ববাদী মোদির নেতৃত্বাধীন সরকার কাশ্মীর ‘দখল’ করে নিয়েছে। আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ওই ভূখণ্ডকে মোদি সরকার ভারতের অন্তর্ভুক্ত করেছে।

এদিকে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর সেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে একটি যৌথ সমাবেশে ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

দীর্ঘ এবং নজিরবিহীন কারফিউ জারি, যোগাযোগ অচলাবস্থা, বাসিন্দাদের মৌলিক প্রয়োজন অস্বীকার, অবৈধ আটক, গুম, নির্যাতন ও বিচারবহির্ভূত হত্যার মাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

বিডি-প্রতিদিন

print

LEAVE A REPLY