একঝাঁক নতুনের দখলে বলিউড…

Bollywoodপ্রতিষ্ঠিত কাজল, রানী, ঐশ্বরিয়া, কারিনা, কঙ্গনা, দীপিকা কিংবা আনুশকাদের মতো নায়িকারা নন, বরং আসছে বছরে বলিউডের বেশীর ভাগ ছবির নায়িকা চরিত্রে দেখা যাবে একেবারে নতুন মুখ।যাদের বেশীর ভাগেরই বলিউডে নেই নূন্যতম অভিনয়ের অভিজ্ঞতা। অথচ জরিপ বলছে বলিউডের চলতি বছর এবং আসছে বছরে ছবিগুলোর অন্তত ষাট শতাংশ ছবিতে নায়িকা চরিত্রে দেখা যাবে তাদের!

জরিপ মতে সংখ্যাধিক্যের দিক থেকে আসছে বছরে বলিউডের মোট ছবির অর্ধেকেরও বেশী ছবিতে অভিনয় করবেন একঝাঁক নতুন মুখ। তাহলে কি নতুন নায়িকাদের দখলে যাচ্ছে বলিউড! এখন প্রশ্ন উঠতে পারে যে, নতুন নায়িকাদের উপর এই ভরসা কিভাবে করতে পারছেন প্রযোজকরা? এর উত্তর হতে পারে বলিউডের বর্তমান আবহ!

আমাদের দেশীয় সিনেমায় দর্শক কম থাকায় এমনটা ভাবতে হয়তো আমরা পারছি না ; কিন্তু বলিউডতো আর দর্শক ক্ষরায় ভুগছে না। বরং দিন দিন বলিউডের চলচ্চিত্র বাজার আরো চাঙ্গা হচ্ছে। মানে কথায় আছে না, কারো চৈত্র মাস কারো বা ভাদ্র মাস!  আক্ষরিক অর্থেই বলিউডে এখন ভাদ্র মাস চলছে। ফলত নতুন মুখের উপরও লগ্নি করতে দ্বিতীয়বার ভাবছেন না বলিউডের প্রযোজকরা, সব মিলিয়ে বলিউডের বাজার এখন রমরমা।

২০১৫-১৬ বছরে বলিউডে একসঙ্গে প্রায় এক ডজনেরও উপরে নতুন নায়িকা আসছেন। নতুন বলে যে তারা প্রায়রিটি বা গুরুত্ব পাচ্ছেন না, তা কিন্তু না। বরং বলিউডের প্রতিষ্ঠিত তারকা অভিনেতাদের সাথেই ছবিতে নামছেন তারা। সেই তালিকায় আছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান থেকে শুরু করে একেবারে ঋত্বিক রোশান, শহীদ কাপুর, অক্ষয় কুমার, জন আব্রাহামসহ আরো আরো সুপারস্টাররা। সেই হিসেবে বলা যায় নতুনেরা ভালই স্বরাজ করতে মাঠে নামছেন। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, ওই নতুন নায়িকারা নন বরং বলিউডের প্রতিষ্ঠিত অভিনেতারাই মানে শাহরুখ, ঋত্বিক, শহীদেরাই নাকি ওইসব নতুন মুখের সাথে অভিনয় করতে বেশী আগ্রহী!

মাহিরা খান: ২০০৫ সালে বলিউড বাদশাহ শাহরুখের সাথে ‘ওম শান্তি ওম’ দিযে বলিউডে অভিষেক হয়েছিলো অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনের। আর সেই দীপিকা এখন বলিউডের শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রীদের একজন। প্রকৃতপক্ষে ফ্যাক্টর এখানে বলিউডের ‘কিং খান’! তার সাথে অভিষেক হওয়া মানে বলিউডে সেই নতুন মুখটির চিরস্থায়ী বন্দ্যোবস্ত হয়ে যাওয়া। তাই শাহরুখ খানের সাথে অভিষেক হওয়া মানে একটা পুরো সাম্রাজ্য হাতে পাওয়ার মতো ব্যাপার। আর সেই কাজটিই করেছেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী মাহিরা খান। সত্যি সত্যিই হাতে তিনি সাম্রাজ্য পেয়ে গেছেন। প্রথমবারের মতো বলিউডেতো আসছেনই, সেই সাথে পাশে পেয়ে গেছেন বর্তমান বলিউডের এক মহাজনকে। রাহুল ঢোলাকিয়ার ছবি ‘রইস’-এ শাহরুখের সাথে স্বপ্নের অভিষেক হতে যাচ্ছে এই পাকিস্তানি অভিনেত্রীর।

শাহরুখের সাথে অভিষেক হচ্ছে, এটা পাকিস্তানি মেয়ে মাহিরা’র কতোটা স্বপ্নের বিষয় তা অনুমান করা যাবে তার পরিবারের কাণ্ড দেখে! শাহরুখের সাথে মেয়ে মাহিরা অভিনয় করতে যাচ্ছেন, এমন খবরে উচ্ছ্বসিত হয়ে মাহিরার পরিবার পাকিস্তানে মানুষের ঘরে ঘরে মিষ্টি বিলি করেছেন।

পূজা হেগড়ে: শৈশব আর কৈশর কেটেছে মুম্বাইয়ে। প্যাশন ছিলো অভিনয় আর ফ্যাশনে। ২০১০ সালে মিস্ ইউনিভার্স ইন্ডিয়া’তে প্রতিযোগিতা করে সেন্ডে রানারআপ হয়েছেন। এরপর তামিল একটি ছবিতে ২০১২ সালে প্রথম অভিনয় করলেও অপেক্ষায় ছিলেন বলিউডের সুযোগ পাওয়ার। অবশেষে তিনি তা পেলেনও। তাও যার তার সাথে নয়, বলিউডের একেবারে মেনলি হিরো ঋত্বিক রোশানের সাথে! আশুতোষ গোয়ারকির ‘মাহেনজো দারো’ ছবিতে ঋত্বিকের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে অভিষেক হচ্ছে বলিউডে। এ যেনো স্বপ্নের অভিষেক! আসছে বছরের ১২ আগস্ট ছবিটি রিলিজ মুক্তির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন পুরো টিম।

আথিয়া শেঠি: বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সুনীল শেঠির মেয়ে আথিয়া শেঠি। অভিনয়ে এখনো হাতেখড়ি না হলে কি হবে, তিনি তো এই পরিবেশের মধ্য দিয়েই বড় হয়েছেন। মেয়েকে অভিনয়ে দিতে বাবা সুনীলের খুব একটা ইচ্ছে না থাকলেও মেয়ের আগ্রহ আর সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খানের আবদার রক্ষা করতেই শেষ পর্যন্ত রাজি হলেন তিনি। সুনীলের বাড়িতে কোনো এক অনুষ্ঠানে মেয়ে আথিয়াকে দেখেন সালমান। অভিনয়ের প্রতি আথিয়ার আগ্রহ দেখে সুনীলকে বুঝিয়ে নিজের কাজের সাথে তাকে শরীক করে নেন সালমান। বহুদিন ধরে সালমানের তত্বাবধানেই নাকি ছিলেন আথিয়া। কিন্তু এবার আসছেন বড় পর্দায়। সালমান খানের আগামী বিশাল প্রজেক্টের ছবি ‘হিরো’তে আসছেন তিনি। ইতিমধ্যে ‘হিরো’র ফার্স্ট লুক, টিজারও জনসম্মুখে এসে গেছে।আসছে ৪ সেপ্টেম্বর ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। ওই ছবিতে সুরজ পাঞ্চালির বিপরীতে অভিনয়ের সাধ পূর্ণ করতে চলেছেন সুনীল কন্যা আথিয়া।

কৃতি স্যানন: কৃতি স্যাননের অভিষেক ছবি না হলেও বলিউডে তার বয়স মাত্র ক’দিনের। এর আগে টাইগার শ্রফের বিপরীতে ‘হিরোপন্তি’ নামের একটি ছবি করেছেন মাত্র। যদিও ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পায়নি। এরজন্য অবশ্য ভাবিত নন কৃতি, তিনি মনে করেন ‘হিট’ ‘ফ্লপ’ এগুলো বিষয় না। অনেক বড় বড় তারকাদের প্রথম ছবি ফ্লপ হয়েছে, তাই বলে কি তারা অভিনয় ছেড়ে দিয়েছিলো! না, অন্তত কৃতি অভিনয় ছাড়ছেন না। প্রথম ছবি ফ্লপ খেলেও তিনি আরো দুটি ছবি নিয়ে আসছেন। আর এ দুটি ছবিই বর্তমান উদীয়মান তারকা অভিনেতা বরুন ধাওয়ানের সাথে। শাহরুখ ও কাজল অভিনীত রোহিত শেঠির আগামী ছবি ‘দিলওয়ালে’-তে বরুনের সাথে দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে। এছাড়াও ‘হাফ গার্লফ্রেন্ড’ নামের অন্য একটি ছবিতেও বরুনের সাথে অভিনয় করবেন তিনি। ‘ফারজি’ নামের আরো একটি ছবিতে অভিনয় করার কথা রয়েছে তার। ওই ছবিতে বলিউডের রোমান্টিক অভিনেতা শহীদ কাপুরের বিপরীতে অভিনয় করবেন তিনি।

টিনা আহুজা: টিনা আহুজা, এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা গোবিন্দ কন্যা। কোনো ধরণের অভিনয় অভিজ্ঞতা না থাকলেও ইতিমধ্যে বলিউডে অভিষেক হয়েছে তার।তবে এরজন্যে বাবার কোনো হাত নেই বলেও দাবী করেন তিনি, বাবার জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে অভিনয় জগতে আসতে চাইলে তিনি বহু আগেই বলিউডে আসতে পারতেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।নিজের যোগ্যতা আর অভিনয় দিয়েই বলিউডে নিজের স্থান পাকাপোক্ত করারও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন টিনা। বছরের আলোচিত কমেডি ছবি ‘সেকেন্ড হেন্ড হাজবেন্ড’ নামের একটি ছবির মাধ্যমে বলিউডে তিনি অভিষিক্ত হন। ছবিটি এ বছরের ৩ জুলাই ভারতে রিলিজ হয়েছে।টিনা আহুজা ছাড়াও জিপ্পি গ্রিওয়াল, ধর্মেন্দ্র এবং গীতা বসরা অভিনয় করেছেন ছবিটিতে। সামনে আরো একাধিক ছবি নিয়ে পর্দায় হাজির হচ্ছেন তিনি।

এ ছাড়াও, উর্বশী রিতেলা, জন আব্রাহামের বিপরীতে নাতালিয়া কৌর,মাহেন্দ্র সিং ধোনির এক্স গার্লফ্রেন্ড ‘রাই লক্ষ্মী’, রিল লাইফে জন আব্রাহামের স্ত্রীর ভূমিকায় সপ্না পাব্বি, সাইয়ামি খের, নোরা ফাতেহি, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার চাচাতো বোন মান্নারা, আমায়রা দস্তুর, জেনিফার উইঙ্গেট, ক্যাটরিনা কাইফের বোন ইসাবেলার মতো আরো বেশকিছু নতুন মুখ একাধিক ছবি নিয়ে আসছেন বলিউডে। সুতরাং বলাই যায় বলিউডের আগামী বছরটা নতুন নায়িকাদের দখলেই থাকবে।

print

LEAVE A REPLY