আড়ং থেকে মমতাজ মেহেদি কিনে ঝলসে গেল হাত

মমতাজ হারবাল টিউব মেহেদি দিয়ে এক তরুণীর হাত ঝলসে গেছে। ওই তরুণীর দুই হাতে কালো ছোপ ছোপ দাগ হয়ে র‌্যাশ পড়ে গেছে। এমন অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফর মমতাজ হারবাল প্রোডাক্টসকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে। অধিদফতরের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস অভিযোগ শুনানি করেন।

জানা গেছে, চটকদার বিজ্ঞাপনে আকৃষ্ট হয়ে গত ৩ অক্টোবর আড়ং থেকে মমতাজ হারবাল টিউব মেহেদি কেনেন রাশিদা খাতুন নামের এক তরুণী। ওই মেহেদি ব্যবহারের পর তার দুই হাতে কালো ছোপ ছোপ দাগ পড়াসহ র‌্যাশ দেখা যায়।

এরপর রাশিদা খাতুন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের শুনানির প্রাক্কালে উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে বিষয়টির সত্যতা পাওয়া যায়। এমনকি মমতাজ হারবাল কর্তৃক তৈরিকৃত মেহেদিতে উৎপাদনের তারিখ, মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ ও উপাদানের বর্ণনাসহ প্রয়োজনীয় তথ্য বিশ্লেষণ পাওয়া যায়নি।

এ ছাড়া মেহেদিতে ব্যবহৃত কেমিক্যাল সম্পর্কে পূর্ব ধারণা থাকলে অভিযোগকারী তার পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে পারতেন। জনস্বার্থে বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হলেও প্রতিষ্ঠানটি তা পরিপালন করছে না।

এসব অপরাধে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠান মমতাজ হারবাল প্রোডাক্টসকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুযায়ী এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। আইন অনুযায়ী অভিযোগকারীকে জরিমানার চারভাগের একভাগ টাকা দেয়া হয়েছে।

উৎসঃ   জা নি
print

LEAVE A REPLY