সবাই দেখে মুরগি, আড়ালে রমরমা অন্য কারবার

রাজধানীর ভাটারা থানাধীন যমুনা ফিউচার পার্ক এলাকা থেকে ১১ হাজার ৬শ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে র‌্যাব-১ এর একটি দল যমুনা ফিউচার পার্কের সড়কে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে র‌্যাব-১ এর একটি দল। আটক ব্যক্তির নাম মো. নাজমুল আলম (৩২)। তিনি কক্সবাজারের রামু উপজেলার দেচুয়া পালংয়ের নুরুল কবিরের ছেলে।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্ণেল মো. সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, আটক নাজমুল একটি সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্য। তারা কক্সবাজার জেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় নদী পথে অবৈধভাবে চোরাচালানের মাধ্যমে মিয়ানমার হতে ইয়াবার চালান নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ইয়াবার চালানগুলো বিভিন্ন পরিবহনে করে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করে।

নাজমুল জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানান, তিনি একজন পোল্ট্রি মুরগির খামারি। খামার পরিচালনার পাশাপাশি মাদক ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত তিনি। দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন পরিবহনে বিশেষ কৌশলে মাদকের চালান রাজধানী ঢাকায় নিয়ে আসছেন নাজমুল।

জব্দ ইয়াবার চালানটি রাজধানীর আশুলিয়ার জনৈক মাদক ব্যবসায়ীর কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল। তিনি ইতিপূর্বে ৮-১০টি মাদকের চালান রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের জেলাসমূহে সরবরাহ করেছেন বলে স্বীকার করেন। চালান সফলভাবে পৌঁছে দিলেই মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পেতেন ২৫ হাজার টাকা। উদ্ধার মাদকদ্রব্য ও আটকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

উৎসঃ   jagonews24
print

LEAVE A REPLY