চট্টগ্রাম ৮ আসনের উপ-নির্বাচনে পুলিশের সহযোগিতায় সব কেন্দ্র আওয়ামী লীগের দখলে!

চট্টগ্রাম থেকে: চট্টগ্রাম ৮ আসনের উপনির্বাচনে পুলিশের সহযোগিতায় বিএনপির প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর লোকজন সবগুলো কেন্দ্র দখলে নিয়ে জাল ভোট দিচ্ছে।

সোমবার সকাল ৯ টায় ভোট গ্রহণ শুরু হলেও ১০ টার পর পুলিশের উপস্থিতিতে বিভিন্ন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন আগ্নেয় অস্ত্র সহ বিএনপির প্রার্থীর লোকজনের উপর হামলা ও কেন্দ্র দখলের উৎসবে মেতে ওঠেন।

আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বহিরাগত লোকজনের হামলায় গুরুতর আহত হন বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির দায়ীত্বে থাকা এডভোকেট সিরাজুল ইসলামসহ বহু নেতা-কর্মী।
এবং বেশীরভাগ কেন্দ্রের বাহিরে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নির্বাচনী এলাকায় আতংক সৃষ্টি করেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বহিরাগত লোকজন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা মনিটরিং সেলের দায়ীত্বে থাকা চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম দুলাল জাষ্ট নিউজ বিডি.কমকে বলেন, বহিরাগত আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম সুজনের নেতৃত্বে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন কাউন্সিলররা এসব হামলা ও কেন্দ্র দখলের ঘটনা ঘটায়।

তিনি আরো বলেন সকাল ১০, পর্যন্ত বিএনপির প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের উপস্থিতি বেশী দেখার পরই আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বহিরাগত সন্ত্রাসীরা ধানের শীষের এজেন্টদের ও ভোটারদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেন এবং পুলিশকে খোরশেদ আলম সুজন নিজে নির্দেশ দেন বিএনপির কর্মীদের গ্রেফতার করতে।

justnewsbd

print

LEAVE A REPLY