ফুলের বাজারে ‘আগুন’

আগামীকাল পহেলা ফাল্গুন। বসন্তের এ আগমনী দিনেই এবার পালিত হবে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। এ অবস্থায় লাল ও হলুদসহ নানা রঙের ফুলে সেজেছে রাজধানীর ফুলের দোকান। ফুল কিনতে এরইমধ্যে ভিড়ও শুরু হয়ে গেছে। ক্রেতার চাপ ও চাহিদা বেশি হওয়ায় ফুলের দামও অনেক বেড়ে গেছে।

রাজধানীর শাহবাগের ফুলের আড়ত ও দোকানে খুচরা বিক্রেতারা ফুলের মালা তৈরির কাজে ব্যস্ত। তারা বিভিন্ন ধরনের ফুল বিক্রি করছেন। অনেকে আজকেই বাসন্তী রঙের শাড়ি পরে ফুলের দোকানে আসছেন। ফুল কিনছেন। এ চিত্র বৃহস্পতিবারের।
আসিফ নামের এক ক্রেতা বলেন, ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ফুল কিনতে এসেছিলাম। কিন্তু আগের চেয়ে দুই থেকে তিনগুণ বেমি দাম চাচ্ছেন দোকানদাররা। তাই ভাবতে হচ্ছে, ফুল কীভাবে কিনবো। কারণ, বাজেটে মিলছে না। তবু কিছু করার নেই। অল্প হলেও ফুল নিতে হবে।

যাত্রাবাড়ীর এক ফুলের দোকানের মালিক জানালেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনি শাহবাগের আড়তে ফুল কিনতে এসেছেন। আগামীকাল বসন্তবরণ ও ভ্যালেন্টাইনস ডে। এদিন অনেক ফুলের প্রয়োজন হবে। তবে স্বাভাবিকের চেয়ে আজই ফুলের দাম অনেক বেশি। কোনো কোনো সময় ১শ পিস লাল গোলাপ পাইকারিতে ৩শ থেকে ৪শ টাকায় পাওয়া যায়। আজ ১শ পিস গোলাপ মানভেদে ৮শ, ১ হাজার এবং ১২শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আগামীকাল পর্যন্ত এমন চড়া দাম থাকবে। তারপর আবার দাম স্বাভাবিক হয়ে যাবে।
টুকরিতে করে ফুলের মালা বানিয়ে বিক্রি করছেন ফুলবানু। তিনি বলেন, ফুল বিক্রি ভালোই হচ্ছে। যার কাছ থেকে যেমন পাচ্ছি, ফুল বিক্রি করছি। শাহবাগের ফুলের এক আড়তদার বলেন, আজ ফুল বিক্রির অনেক চাপ। গতকাল রাত থেকে চাপ শুরু হয়েছে। কাল সারারাত বিক্রি হয়েছে।

print

LEAVE A REPLY