করোনা মোকাবিলায় ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক সহায়তা ভারতের

রীভা গাঙ্গুলি দাশ ও এ কে আবদুল মোমেন। ফাইল ছবি

বৈশ্বিকভাবে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ ভাইরাস বিস্তার রোধে ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক ও ১৫ হাজার হেড কভার বাংলাদেশকে সহায়তা হিসেবে হস্তান্তর করেছে ভারত সরকার। এই অঞ্চলের প্রতি ভারতের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অংশহিসেবে এসব চিকিৎসা সরঞ্জাম দেয়া হয়েছে।

বুধবার ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের কাছে এই সহায়তা হস্তান্তর করেন।

ভারতীয় হাইকমিশনের গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘এসব সামগ্রী কোভিড-১৯ ভাইরাস বিস্তার মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়ক হবে।’

এর আগে ভারতের ‘প্রতিবেশী প্রথমে’ নীতির অংশহিসেবে ও কোভিড-১৯ ভাইরাস বিস্তার রোধে একটি সমন্বিত আঞ্চলিক উদ্যোগ নিতে ১৫ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং অন্য সার্ক নেতৃবৃন্দ একটি ভিডিও কনফারেন্স করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণা অনুসারে প্রাথমিকভাবে ভারতের ১ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা নিয়ে কোভিড-১৯ জরুরি তহবিল গঠিত হয়। পরবর্তীকালে, বাংলাদেশ সরকারসহ সার্কের বিভিন্ন দেশ কোভিড-১৯ জরুরি তহবিলে অবদান রাখে।

এতে আরও বলা হয়, সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণ এবং নিজেদের সেরা অনুশীলনগুলো বিনিময়ের জন্য ভারত ও বাংলাদেশের চিকিৎসক এবং অন্যান্য অংশীদারদের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্স পরিচালনার প্রস্তুতিও চলছে।

‘বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে প্রতিকূল সময়ে ভারত বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াতে প্রস্তুত। ভারত, বাংলাদেশ এবং অন্যান্য সার্ক দেশ ঐক্যবদ্ধভাবে কোভিড-১৯ সংক্রমণে সৃষ্ট পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারবে।’

print

LEAVE A REPLY