Lwa Commitiময়মনসিংহে জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন-২০১৬ কে ঘিরে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা এখন তুঙ্গে। প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোট প্রার্থনায় আদালত পাড়া থেকে ভোটরদের বাসা পর্যন্ত ছুটছেন প্রার্থীরা। দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। দু’টি প্যানেলে অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনে জয় পেতে মরিয়া হয়ে দলবদ্ধ ভাবে প্রচার-প্রচারণায় নেমেছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থিত প্যানেলের আইনজীবীরা। সবমিলিয়ে জমে উঠেছে আইনজীবী সমিতির নির্বাচন।
সমিতি সূত্র জানাযায়, আগামী ২৭ জানুয়ারি আইনজীবী সমিতির শহীদ আমিনুল হক ভবনে অনুষ্ঠিত হবে এ নির্বাচন। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এতে ভোট প্রদান করবেন মোট ৭৯৭জন ভোটার। দু’টি প্যানেলে ১৫টি পদের বিপরীতে এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩০জন আইনজীবী। এর মধ্যে নারী আইনজীবী রয়েছেন মাত্র একজন।
সূূত্রমতে, দুর্নীতি ও প্রভাবমুক্ত বিচার ব্যবস্থা ও আইনের শাসন কায়েমসহ ১১টি প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্যানেল পরিচিত তুলে ধরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে প্রচারণা চালাচ্ছেন বিএনপি সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা। এ প্যানেলে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন গত নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী শ্রী বাধঁন কুমার গোস্বামী ও সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক।
অপরদিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাতীয় উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখাসহ ১২টি প্রতিশ্রুতি সম্বলিত প্যানেল পরিচিতির লিফলেট বিলি করে ভোট প্রার্থনা করছেন ক্ষমতাসীণ দল আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা। এ প্যানেলে সভাপতি পদে প্রথমবারের মত লড়াই করছেন অনিল কুমার ঘোষ ও সাধারণ সম্পাদক পদে এবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন গতবারের পরাজিত প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুর রহমান আল হোসাঈন তাজ।
তবে আইনজীবীরা জানায়, এ নির্বাচনে দেশের র্শীষ দুই রাজনৈতিক দল সমর্থিত প্যানেলে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও প্রার্থীদের জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে ব্যক্তি গ্রহণযোগ্যর উপর ভিত্তি করে। কেননা আইনজীবীরা দল সচেতন হলেও তারা চায় নিজেদের পেশাগত মান উন্নয়ন। আর এ কারণেই ভোটাররা প্রার্থীদের বর্তমান ও অতীতের গুনাবলী ও কর্মকাণ্ড বিশ্লেষন করেই গোপন ব্যালটে তাদের মতমত প্রদান করবেন।

print

LEAVE A REPLY