নাসির-মিঠুনকে দলে নেয়ার ব্যাখ্যা দিলেন নির্বাচক

nasirজিম্বাবুয়ে সিরিজকে বলা হয়েছিল আসন্ন বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ জাতীয় দলের জন্য একটি পরীক্ষামূলক সিরিজ। সে দলে ছিলেন না নাসির হোসেন ও হাম্মদ মিঠুন; কিন্তু বুধবার ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়েছেন তারা। তাদের অন্তর্ভুক্তি সবার মনেই প্রশ্ন তুলেছে। আর এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ জানান নাসিরের ক্যাপাবিলিটি নিয়ে তাদের কখনোই কোন সন্দেহ ছিল না। আর মোঃ মিঠুনকে টি-টোয়েন্টি স্পেশালিষ্ট হিসাবেই দলে নিয়েছে।

নাসিরকে জিম্বাবুয়ে সিরিজে দলে না নেওয়ার কারণ হিসাবে জানান, নতুনদের পরীক্ষা করা। এ নিয়ে বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘নাসিরের ক্যাপাবিলিটি কি আমরা তা জানি। ফলে আমরা চেষ্টা করেছিলাম নতুনদের সুযোগ দিয়ে এনে কিছু করা যায় কি না। মোঃ মিঠুন চার বছর আগে টি-টোয়েন্টি খেলেছে। এরপর ভারতে একটা টুর্নামেন্ট খেলেছে। বিপিএলে বলবো না খুব দুর্দান্ত কিছু করেছে। তবে ‘এ’ দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়েতে খুব ভালো খেলেছে। খুলনায় অনুশীলন ক্যাম্পেও ভালো করেছে। সব বিবেচনা করেই ওকে দলে নিয়েছি।’
এছাড়াও এই দুই ব্যাটসম্যানের অভিজ্ঞতাকেও কাজে লাগাতে চান ফারুক আহমেদ। কোচ অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলেই দল নির্ধারণ করেছেন বলে জানান তিনি। এই প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘আসলে দল হয় একটা কম্বিনেশন চিন্তা করে। ম্যাচে কাকে খেলাবে কোচ ও অধিনায়ক করে থাকে তবে অবশ্যই আমাদের সাথে কথা বলে। সব বিবেচনায় তাকে (মিঠুন) নিয়েছি। সে টপ অর্ডার থেকে যে কোন জায়গায় খেলতে পারে। পাশাপাশি সে অনেক অভিজ্ঞও। ‘এ’ দলের পারফরমেন্স সাহায্য করেছে তাকে দলে নেওয়ার ক্ষেত্রে। আমরা তাকে টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় মনে করি। প্রথম সুযোগ এই সংস্করণেই পেয়েছিল। এবার এই স্টেজে দেখতে চাই সে কেমন করে।’
মিঠুনকে বিশ্বকাপের দলে নেয়ার কথা আগে থেকেই নির্বাচকদের থাকলে কেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে ছিলেন না? এমন প্রশ্নে ফারুক আহমেদ বলেন, ‘তখন মিঠুন পুরোপরি ফিট ছিল না। আমরা পরে ওকে নিয়েছি। তখন ও খুব ভালো করেছে। যদিও অনুশীলন ম্যাচ দেখে একজনকে নেয়া যায় না। সে আমাদের বিবেচনায় ছিল। সে ওয়ানডে খেলেছে। তারপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ গিয়েছে; কিন্তু ইনজুরড হয়ে ফিরে এসেছে। সে যে মানের খেলোয়াড় তার পুরোটা আমরা দেখতে পারি নাই। আমার মনে হয় সে খুব ভালো খেলোয়াড়। সে যদি সঠিক জায়গায় সঠিক সময়ে সুযোগ পায়, তাহলে কিছু করে দেখাতে পারবে এবং সেই সামর্থ্যও তার আছে।’

print

LEAVE A REPLY