আলিশার নাচে সরগরম

1562_e2অনেক দিন ধরেই খুব একটা সরগরম দেখা যাচ্ছিল না এফডিসিতে। এর কারণ হিসেবে জানা যায়, বর্তমানে চলচ্চিত্রের এই বসতবাড়িতে খুব একটা শুটিং হয় না। এককেন্দ্রিক লোকেশনের কারণে এবং খরচ বেশি হওয়ায় বেশিরভাগ নির্মাতাই ঢাকাসহ আশপাশের সুন্দর সুন্দর লোকেশনে শুটিং করে থাকেন। হিসাব মতে, সেট কেন্দ্রিক কোন শুটিং হলেই শুধু এফডিসিতে শুটিং করা হয়। তাও যদি ছবির নায়ক শাকিব খান থাকেন তবে এফডিসিতে কিছুটা মানুষজন দেখা যায়। কিন্তু গত কয়েকদিন দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে সেটিও খুব একটা দেখা যায়নি। মঙ্গলবার সকালে সামান্য একটু শুটিং করেই অপু বিশ্বাসকে নিয়ে আউটডোরে চলে গেছেন শাকিব খান। তারপরও ফাঁকা এফডিসি বেশ পরিপূর্ণ মনে হচ্ছে। বিশেষ করে তিন নাম্বার ফ্লোরের আশপাশটা বেশ জমজমাট। যেন এই হালকা শীতে ভিতরে গরম হাওয়া বইছে। সাংবাদিক-ফটোগ্রাফারসহ উৎসুক চলচ্চিত্রের বিভিন্ন মানুষের উপচে পড়া ভিড়। কারণ হিসেবে জানা যায়, ভিতরে শুটিং করছেন চলচ্চিত্রের নবাগতা নায়িকা আলিশা প্রধান। সেখানে একটি বার ড্যান্সার হিসেবে নেচে চলেছেন আলিশা। হট পোশাকে আলিশার এই উপস্থাপন দেখার জন্যই উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্যণীয়। শুটিংয়ের মাঝে মাঝে আলিশা আবার সামনে উপস্থিত পরিচিতজন ও দর্শকদের ফ্লাইং কিস মারছেন। সব মিলিয়ে যেন একটা রমরমা অবস্থা লক্ষ্যণীয়। এরই মধ্যে কেউ কেউ বলছেন পুরো এফডিসি যেন গরম করে দিল আলিশা। ছবির নাম ‘অন্তরঙ্গ’। .ছবিটি পরিচালনা করছেন চাষী নজরুল ইসলাম। কার্নিভাল মোশন পিকচার্সের প্রযোজনায় ছবিতে আলিশার নায়ক হিসেবে আছেন ইমন। ছবির নাচের কোরিওগ্রাফি করছেন হাবিব। সব মিলিয়ে পুরো গরম আবহাওয়ার মধ্যে কাজের প্রসঙ্গে আলিশা প্রধান বলেন, এমনি একটি উপস্থাপনের মধ্য দিয়েই ছবির কাজ শুরু করতে চেয়েছিলাম আমি। সেটা সফল হয়েছে। আশা করছি বেশ ভাল পারফর্মের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে নিয়মিত অভিনয় করবো। এফডিসিতে এই ক্লাব ড্যান্সের শুটিং শেষেই আলিশা চলে যাবেন কক্সবাজারে। সেখানে অন্য একটি গানের চিত্রায়ণ হবে বলে জানা যায়। ‘অন্তরঙ্গ’ ছবিটি ছাড়াও আলিশা এরই মধ্যে শুটিং করেছেন পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামের ‘ভুল যদি হয়’ ছবির। এ ছবিতেও আলিশার নায়ক হিসেবে আছেন ইমন। ছবিটির কাজ বর্তমানে শেষ পর্যায়ে। এছাড়াও
আলিশা এরই মধ্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন কার্নিভাল মোশন পিকচার্সের আরও চারটি ছবিতে। ছবিগুলো পরিচালনা করবেন শাহিন-সুমন, সোহানুর রহমান সোহান, জাকির হোসেন রাজু ও ইফতেখার চৌধুরী। ইউরোকোলার বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হিসেবে মিডিয়ায় আলোচনায় আসা আলিশা প্রধানের বর্তমানের স্বপ্নজুড়ে শুধুই সিনেমা। ভাল মানের ছবিতে নতুনরূপে নিজেকে উপস্থাপন করে চলচ্চিত্র শিল্পে জায়গা করে নেয়ার জন্য মনেপ্রাণে প্রস্তুত আলিশা বলেন। তিনি বলেন, আমি আমার সর্বোচ্চ মেধা দিয়ে সুযোগগুলো কাজে লাগানোর মাধ্যমে আমার স্বপ্নের চলচ্চিত্র শিল্পে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। আমার বিশ্বাস আমি তা পারবো। আর এজন্য আমার শ্রদ্ধেয় পরিচালক-প্রযোজক, কাছের মানুষ ও শুভাকাঙক্ষীদের প্রতি জানাই বিশেষ কৃতজ্ঞতা।

print

LEAVE A REPLY