চাল না পেয়ে জেলেদের বিক্ষোভ, মারধরে আহত ৪

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলায় ভিজিএফের চাল না পেয়ে বিক্ষোভ করায় জেলেদের মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এতে চার জেলে আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পাটারিরহাট ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বিক্ষোভ ও মারধরের ঘটনা ঘটে।

আমির হোসেন, শাহজাহানসহ বিক্ষুব্ধ জেলেরা জানায়, জেলে নিবন্ধন কার্ড (জেলে পরিচয়পত্র) থাকার পরেও তাদেরকে চাল দেয়া হচ্ছে না।

তাদের অভিযোগ, পাটারিরহাট ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান ও কয়েকজন সদস্য (মেম্বার)  প্রকৃত জেলেদেরকে চাল না দিয়ে আত্মীয়-স্বজন ও অনুসারীদের মাঝে চাল বিতরণ করছে।

এ ঘটনায় দুপুরে চাল বঞ্চিত প্রকৃত জেলেরা বিক্ষোভ করেন। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যানের পক্ষের লোকজন তাদের মারধর করে।

মারধরে জেলে মনির, মোছলেহ উদ্দিন, নবী মাঝি ও আনিছ মাঝি আহত হন। তাদেরকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

পাটারিহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম নুরুল আমিন রাজু বলেন, ইউনিয়নে ৩ হাজার ৬২৬ জন নিবন্ধিত জেলে রয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৪৬২ জন জেলের জন্য ৪০ কেজি করে চাল বরাদ্ধ এসেছে। এমন পরিস্থিতিতে সব জেলেকে চাল দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এতে বিতরণের সময় চাল বঞ্চিত জেলেরা বিক্ষুব্ধ হয়।

কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা জানান, চাল বিতরণে অনিয়ম হলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধি ও জাটকা রক্ষায় মার্চ-এপ্রিল দুই মাস লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে মাছ ধরা ওপর নিষেধাজ্ঞা জরি করে সরকার।

এসময় জেলেরা মাছ ধরা থেকে বিরত রাখতে খাদ্য সহায়তা হিসাবে প্রত্যেককে ৪০ কেজি করে চার কিস্তিতে চাল বিতরণ করছে সরকার।

print

LEAVE A REPLY