এক রশিতে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রী এক রশিতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার মির্জাপুর উপজেলার ১১নং আজগানা ইউনিয়নের চিতেশ্বরী গ্রামে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে।

আজগানা ইউনিয়নের সদস্য নজির উদ্দিন জানান, চিতেশ্বরী গ্রামের বাবুল খানের ছেলে রাশিদুর রহমান (২৪) এবং একই গ্রামের আলমাছ মিয়ার মেয়ে সুমী আক্তারের (২০) মধ্যে দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

পরে দুই পরিবারের সম্মতিতে সম্প্রতি তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর গত কয়েক মাস ধরে তারা স্বামী-স্ত্রী হিসেবে সংসারও করে আসছিল। রাশিদুর পেশায় একজন ট্রাক চালক।

বিয়ের কিছু দিন যেতে না যেতেই দুই পরিবারের মধ্যে তাদের প্রেমের সম্পর্ক এবং বিয়ে নিয়ে মতবিরোধ দেখা দেয়। এ নিয়ে দুই পরিবার এবং স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকত বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

ইউপি সদস্য জানান, সোমবার রাশিদুর ও সুমী বাড়ির উঠানে একটি গাছের সঙ্গে একই রশিতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। আশপাশের লোকজন দুপুরে গাছের সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর ঝুঁলন্ত লাশ দেখে তাদের পরিবার এবং পুলিশকে খবর দেয়।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

মির্জাপুর থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যার খবর পেয়ে তিনি ও কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি জানান, কী কারণে তারা আত্মহত্যা করেছে তার সঠিক কারণ এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

print

LEAVE A REPLY