এবার জাতীয় নির্বাচনে নতুন পদ্ধতিতে আ.লীগের মনোনয়ন!

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার দল একাদশ সংসদ নির্বাচনে নতুন পদ্ধতিতে প্রার্থী মনোনয়ন দেবে। অর্থাৎ জরীপের ভিত্তিতে মনোয়ন দেয়া হবে, এতে কারো কোনো কথা চলবে না।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, স্থানীয় নেতাদের জনপ্রিয়তা জানতে প্রতি ছয় মাস পর পর সংসদীয় আসনগুলোতে জরীপ চালানো হবে। জরীপে যারা ভালো বিবেচিত হবেন, আগামী নির্বাচনে তাদের মনোনয়ন দেয়া হবে।

রবিবার রাতে আওয়ামী লীগ সংসদীয় দলের এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় উপস্থিত কয়েকজন সংসদ সদস্য প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানান।

জাতীয় সংসদ ভবনের ট্রেজারি বেঞ্চ কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ প্রধান বলেন, জরীপ রিপোর্টে যাদের নাম আসবে, তারাই মনোনয়ন পাবেন। এটি ভুল কি শুদ্ধ- তা কোনো বিষয় নয়।

আগামী নির্বাচনে দলের বিজয় নিশ্চিত করতে সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য তিনি আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্যদের নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে তাদের দূরত্ব কমিয়ে আনতে এবং সামাজিক মাধ্যমে উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের চিত্র তুলে ধরারও নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী আরো আরো বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে দায়িত্ব নিয়েছিলাম। কিন্তু আগামী নির্বাচনে দায়িত্ব নিতে পারবো না। সবাইকে নিজ যোগ্যতাবলে পাস করে আসতে হবে। এর জন্য এখন থেকেই মাঠে নামতে হবে, মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

বৈঠকে ১১ জন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য প্রথমবারের মতো আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের বৈঠকে অংশ নেন। প্রথমেই শেখ হাসিনা তাদের পরিচয় করিয়ে দিয়ে জানান, এই সংসদ সদস্যরা এখন থেকে আওয়ামী লীগের অংশ।

প্রসঙ্গত, এতদিন জাতীয় সংসদে ১৬ জন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ছিলেন। এর মধ্যে পাঁচজন আওয়ামী লীগে যোগ দেননি। তারা হলেন উষাতন তালুকদার, রুস্তম আলী ফরাজী, মজিবুর রহমান চৌধুরী (নিক্সন), মকবুল হোসেন ও রহিম উল্লাহ।

বাসস অবলম্বনে

print

LEAVE A REPLY