যশোরে ভিক্ষার অনুমতি চেয়ে মানববন্ধন

কাজ দেও, ভাতা দেও, নাইলি ভিক্ষে করতি দেও’- এই দাবিতে এবার যশোর কালেক্টরেট চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে যশোরের প্রায় অর্ধশত ভিক্ষুক।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় প্রতিবন্ধী ভিক্ষুকরা দাবি করেন, তাদেরকে প্রতিমাসে অন্তত ১০ হাজার টাকা ভাতা দিতে হবে। তা না হলে তাদেরকে ভিক্ষা করার অনুমতি দিতে হবে।

কর্মসূচিতে অংশ নেয়া ভিক্ষুকরা জানান, প্রশাসন-সরকার যশোরকে ভিক্ষুকমুক্ত করেছে। কিন্তু তারা কোনো ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা পাননি। আবার প্রশাসন তাদের ভিক্ষাও করতে দিচ্ছে না। তাহলে তারা কী করবেন?

মানববন্ধনে অংশ নেয়া আরবপুর এলাকার ভিক্ষুক শুকুর আলী জানান, তার এক পা নেই। অথচ তিনি কোনো সাহায্য পাননি। অথচ এখন ঠিকমত ভিক্ষাও করতে পারছেন না। এভাবে চললে তাদের না খেয়ে মরতে হবে। প্রতিবন্ধীদের ১০ হাজার টাকা ভাতা দাবি করেন তিনি।

জন্ম থেকেই দুই পা হারানো প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক শহিদুল ইসলাম জানান, ‘পাবলিক কচ্চে- সরকার তুমাগের সাহায্য দেচ্ছে, তাইলি আবার তুমরা ভিক্ষে করতিছো ক্যানো? আবার প্রশাসনও ভিক্ষে করতি বাধা দেচ্ছে। তাইলি আমরা খাবো কী?’

একই কথা জানিয়ে ভিক্ষুক আনোয়ার হোসেন, দীন মোহাম্মদ, আবদুল ওহাব ও ফজলুল হক বলেন, যে কাজ আমরা করতে পারি, সেই কাজ দাও, নইলে ভাতা দাও। আর তা না হলে আমাদের ভিক্ষা করার অনুমতি দাও। এই দাবিতে আমরা এই মানববন্ধন করছি।

print

LEAVE A REPLY