বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের কালো তালিকা হচ্ছে: রিজভী

ঢাকা: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, বন্দুকযুদ্ধের নামে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড যারা চালাচ্ছে তাদের কালো তালিকা করা হচ্ছে। তারা কেউ পার পাবে না।

শনিবার সকালে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, দেশে সরকার আছে বলে মনে হয়না। পুলিশ আর আওয়ামী লীগ একাকার হয়ে ইফতার মাহফিলের মতো ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বাধা দিচ্ছে।এভাবে বিরোধীদলকে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান থেকে সরকার বিরত রাখতে চায় বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

রিজভী আরো বলেন, পবিত্র রমজান মাসে বিশ্বের মুসলিমজাতি যখন রমজানে সিয়াম সাধনা করছে, তখন দেশে সরকারের সন্ত্রাসীরা বিরোধীদলীয় ইফতার মাহফিলে আক্রমণ করছে। বাড়িতে বাড়িতে হানা দিয়ে আক্রমন করছে। তারা দ্রুত বিচার আইনের অধীনে মামলার ভয় দেখাচ্ছে।

রিজভী বলেন, গতকাল শুক্রবার নরসিংদীতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খানের ইফতার মাহফিলে বাধা দিয়েছে। মঞ্চ পন্ড করেছে। ছাত্রলীগের স্থানীয় সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র হামলা করে ইফতার মাহফিল ভাঙচুর করেছে। মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইয়াজ্জেম হোসেন রোমানের বাড়িতে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হলে তার বাড়িতে হামলা চালায় পুলিশ। পরে ইফতার মাহফিল বন্ধ করে দিয়েছে। ঢাকার দোহারেও ইফতার মাহফিলে বাধা দেয়া হয়েছে। মনে হচ্ছে পুলিশ এখন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করছে।

রিজভী বলেন, আজকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মানুষের কাছ থেকে জোর করে টাকা আদায় করা হচ্ছে। এই হলো দেশের বর্তমান অবস্থা। নরসিংদীতে জেলা ছাত্রদল নেতাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তুলে নিয়ে গেছে জানিয়ে তিনি অবিলম্বে তার সন্ধান দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ মোমোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, কাজী আবুল বাশার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

print

LEAVE A REPLY