গাজীপুরে চালক হত্যায় ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

গাজীপুরে অটোরিকশাচালক হত্যার দায়ে দুই ভাইসহ তিন আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে প্রত্যেক আসামিকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া মামলার অপর একটি ধারায় (দস্যুতা) প্রতেককে ১০ বছর করে সশ্রম করাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাস করে সশ্রম করাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার সকালে গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক একেএম এনামুল হক এ দণ্ডাদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান ওরফে বাবু, কালিয়াকৈরের জাথালিয়া এলাকার মৃত আমির হামজা ওরফে মো. ওমর আলীল ছেলে মো. আলমগীর হোসেন ও দেলোয়ার হোসেন।

রায় ঘোষণার সময় আলমগীর হোসেন ও মেহেদী হাসান ওরফে বাবু আদালতে উপস্থিত ছিলেন। দেলোয়ার হোসেন পলাতক রয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাটের বাসিন্দা হায়দার আলী গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ভাড়া থেকে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালাতেন।

২০১৩ সালের ২৬ ডিসেম্বর বিকালে অটোরিকশা নিয়ে বের হন তিনি। এরপর থেকে হায়দার আলী নিখোঁজ ছিলেন।

পরদিন কালিয়াকৈর রতনপুর এলাকায় হায়দারের লাশ পাওয়া যায়। তার শরীরের বহু আঘাতের চিহ্ন ছিল।

পরে এ ব্যাপারে নিহতের বড়ভাই শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঢাকার সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক নজমুল হক ওই তিনজনকে বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন।
পরে চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গঠন করা হয়। ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ এবং শুনানি শেষে বুধবার ওই আদালত এই রায় ঘোষণা করেন।

মামলায় রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী ছিলেন পিপি মো. হারিজ উদ্দিদন আহমেদ এবং আসামি পক্ষে আইনজীবী ছিলেন মো. লাবিব উদ্দিন সিদ্দিক ও ওয়াহিদুজ্জামান আকন।

print

LEAVE A REPLY