‘র’ এর একটি বড় ষড়যন্ত্র বানচাল করায় প্রধানমন্ত্রী ও র‌্যাব-পুলিশকে ধন্যবাদ: জাফরুল্লাহ

মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, যে যাই বলুক না কেন, ফরহাদ মজহারকে অপহরণের সঙ্গে র‌্যাব-পুলিশ জড়িত ছিল না, বরং ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর লোকেরাই তাকে অপহরণ করে যশোহর-খুলনা সীমান্ত দিয়ে ওপারে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল বলেই আমার মনে হয়েছে।
রাজনৈতিক এই বিশ্লেষক আরো বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে র‌্যাব-পুলিশের কোনো সম্পৃক্ততা থাকলে আমরা কখনোই এতো তাড়াতাড়ি ফিরে পেতাম না। অন্যথা ইলিয়াস-সালাউদ্দিনের মত ঘটনাও ঘটতে পারতো। বরং প্রধানমন্ত্রীর তড়িত হস্তক্ষেপে র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবির আন্তরিক সহযোগিতায় মজহারকে তাড়াতাড়ি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এর মাধ্যমে ভারতীর গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর একটি বড় ধরনের ষড়যন্ত্র বানচাল হয়ে গেছে।
এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকে আমি ব্যক্তিগতভাবে ধন্যবাদ জানাই। কেননা, ঘটনাটি জানার পরপরই তিনি তড়িত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মূলত তার হস্তক্ষেপেই ফরহাদকে আমরা জীবিত ফিরে পেয়েছি। এ জন্য আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ।’
বুধবার রাতে আরটিএনএনের সম্পাদকের সঙ্গে একান্তে আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেন।
মহান মুক্তিযুদ্ধের এই সংগঠক বলেন, ‘নিজেদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা নিয়ে বিশ্বে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হচ্ছে ভারত। ভারতজুড়ে অমানবিক কর্মকাণ্ড চলছে। বিশেষ করে কাশ্মীর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল উত্তর প্রদেশ, আসাম ও মুনিপুরসহ বিভিন্ন অঞ্চলে মানুষ অত্যাচারিত ও নির্যাতিত হচ্ছেন। সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। এ সব বিষয়ে ফরহাদ মজহার খুবই সোচ্চার ছিলেন। আর এ কারণেই তিনি ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর টার্গেটে পড়েন।
তিনি আরো বলেন, র‌্যাব-পুলিশ অনেক খারাপ কাজও করে থাকে। কিন্তু গত কয়েক বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভাল কোনো কাজ করে থাকলে এই কাজটি করেছে। এ জন্য তারা ধন্যবাদ পেতে পারে। জাফরুল্লাহ চৌধুরী এও বলেন, প্রকৃত ঘটনা কী, তা জানতে আমাদেরকে আরো কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হবে। দেখতে হবে ফরহাদ মজহারকে মৃত্যুর ভয় দেখানো হয়েছিলো কিনা, তার স্ত্রী কিংবা মেয়েকে হত্যার ভয় দেখানো হয়েছিলো কি না। ফরহাদ সুস্থ হলে আমরা আশা করি পুরো ব্যাপারটা জানা যাবে। তা না হলে উড়ো কথা বলে কোনো লাভ নেই।
ফরহাদ মজহারকে যদি মৃত্যুর ভয় কিংবা তার স্ত্রী ও মেয়েকে হত্যার ভয় দেখানো হয়ে থাকে তবে হয়তো ঘটনা আঁড়ালেই থেকে যেতে পারে। তবে আমরা আশা করবো-তিনি পুরো ঘটনাটি দেশবাসীকে জানাবেন।

print

LEAVE A REPLY