ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই, ছবি প্রকাশ

রাজশাহী মহানগরীতে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পরিচয় দিয়ে এক নারীর কাছ থেকে টাকা ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত দুই ব্যক্তির মধ্যে একজনের ছবি প্রকাশ করেছে পুলিশ। টাকার ব্যাগ নিয়ে চলে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশের একটি দোকানের সামনে লাগানো সিসি ক্যামেরায় ওঠে ওই ছিনতাইকারীর ছবি।
এরপর শনিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ওই ছবি প্রকাশ করে পুলিশ। রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) বোয়ালিয়া থানার ফেসবুক আইডি থেকে ছবিটি প্রকাশ করে ওই ছিনতাইকারীর পরিচয় জানলে তা পুলিশকে জানানোর অনুরোধ করা হয়। ওই পোস্টে বলা হয়েছে, তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রাখা হবে। পাশাপাশি তথ্যদাতাকে পুরস্কৃতও করা হবে।
ফেসবুকে আপলোড করা কয়েকটি ছবিতে দেখা যায়, নগরীর রানীবাজার এলাকার সড়কটি দিয়ে ডান হাতে ভ্যানেটি ব্যাগ নিয়ে জোর কদমে এগিয়ে যাচ্ছে ছিনতাইকারী। ছাই রঙের প্যান্ট আর কালো রঙের শার্ট পরে ইন করে ছিল ওই ছিনতাইকারী। শ্যামলা বর্ণের বেশ লম্বা ওই লোকটির পায়ে ছিল কালো রঙের জুতাও।
গত সোমবার দুপুর ১২টার দিকে নগরীর অলোকার মোড়ের বাসিন্দা ফেরদৌসী বেগম একটি ভ্যানিটি ব্যাগে করে ৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা নিয়ে ব্যাংকে যাচ্ছিলেন। এ সময় রানীবাজার এলাকায় একজন অজ্ঞাত ব্যক্তি নিজেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ফেরদৌসী বেগমের ব্যাগ তল্লাশি করতে চায়। ওই ব্যক্তির কথামতো টাকার ব্যাগটি তার হাত তুলে দেন ফেরদৌসী বেগম।
এর পরপরই আরেক ব্যক্তি এসে ফেরদৌসীর নাম-ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর জানতে চায়। তার সঙ্গে কথা বলার সময় ব্যাগ তল্লাশিকারী ব্যক্তিটি দ্রুত ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর অপর ব্যক্তিও দৌড়ে পালিয়ে যায়। এদের মধ্যে থেকে যে ব্যক্তি টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়, তার ছবিই প্রকাশ করল পুলিশ।
আরএমপির মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতেখায়ের আলম বলেন, ছিনতাইকারীর পরিচয় নিশ্চিত হতে তার ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করা হয়েছে। অন্য বিভিন্ন উপায়েও তাকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। আমরা যে কোনো মূল্যে ছিনতাইকারীদের আইনের আওতায় আনতে চাই।
টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ফেরদৌসী বেগম বোয়ালিয়া থানায় মামলা করেন। এ ঘটনার চার দিনের মাথায় গত বৃহস্পতিবার দুপুরে একই কায়দায় নগরীর মতিহার থানার মাহেন্দ্রা এলাকায় একটি জুট মিলের সাড়ে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। তবে এসব টাকা উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। গ্রেপ্তার হয়নি কোনো ছিনতাইকারীও।

print

LEAVE A REPLY