ফ্রাঙ্কফুর্ট বই মেলায় বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল আসছে কাল

জার্মানীর ফ্রাঙ্কফুর্টের ৬৯ তম আন্তর্জাতিক বই মেলায় অংশগ্রহণ করতে ৬ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল কাল সকালে ফ্রাঙ্কফুর্ট পৌছবে।

বাংলাদেশ জ্ঞান এবং সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি মাজহারুল ইসলাম দলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন। প্রকাশক ছাড়াও প্রতিনিধি দলে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং সাহিত্যিক মঞ্জুরুল ইসলাম এবং কবি তারিক সুজাত।

২০১৪ সালে তৎকালীন প্রকাশক সমিতির সভাপতি ওসমান গনি এবং সাধারন সম্পাদক কামরুল ইসলাম শায়ক এই মেলায় পর্যবেক্ষক হিসেবে এসে সিধান্ত নেন তাদের প্রকাশক সমিতি ২০১৫ সাল থেকে এই মেলায় আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রতি বছরই নিয়মিত অংশ নেবেন। ২০১৫ সালে সাংস্কৃতিক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহাবুব শাকিল, বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কবি কামাল সিদ্দিকি এই মেলায় অংশ নেন। সেবারই এই মেলার বাংলাদেশ স্টল আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধনের  মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রকাশনা শিল্পের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে  প্রবেশ ঘটে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের প্রকাশনা শিল্পের সাথে বাংলাদেশের  প্রকাশনা শিল্পের যোগসূত্র স্থাপিত হয় । 

এই মেলায় সাধারণত বই বিক্রির কোন সুযোগ নেই, বই শুধুমাত্র এখানে প্রদর্শিত হয় এবং ব্যবসায়ীক চুক্তিপত্র হয়। সাধারণ দর্শকদের জন্য  শুধু মাত্র শনিবার এবং রবিবার মেলায়  প্রবেশধিকার থাকে, বুধবার থেকে শুক্রবার শুধু প্রফেশনাল ভিজিটরদের জন্য সংরক্ষিত রাখা হয়।   

ভারত থেকেও আনন্দ পাবলিশার্সের উজ্জল সিনহা আজ ফ্রাঙ্কফুর্ট এসে পৌঁছেছেন, তারা  প্রায় ৫০ বছর ধরে এই মেলায় অংশ নিচ্ছেন। কলকাতা ছাড়াও দিল্লি, বোম্বে এবং ভারতের অন্যান্য অংশের প্রকাশকরা এই মেলায় অংশ নেন।

১৯৮৬ সালে এবং ২০০৬ সালে ভারত ছিল এই মেলায় গেস্ট অব অনার। এই বছর গেস্ট অব অনার হচ্ছে ফ্রান্স। আমরা আশা করছি বাংলাদেশও একদিন এই মেলায় গেস্ট অব অনারের মর্যাদা লাভ করবে ।

হাবিব বাবুল
বেতার বাংলার উপস্থাপক এবং রাজনীতি বিশ্লেষক

print

LEAVE A REPLY