ক্ষমা চাইলেন স্টোকস

অবশেষে নীরবতা ভাঙলেন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। সেটি করতে গিয়ে আবারও বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন।

গত মাসে ব্রিস্টলে মারধরের ঘটনার তদন্ত এখনও চলমান। সেই ঘটনার পর আরেক ভিডিও বিতর্কে জড়িয়ে ক্ষমা চাইলেন ইংল্যান্ড তারকা। এরপরই হারিয়েছেন নিজের ব্যাট স্পন্সর নিউ ব্যালেন্সের সঙ্গে চুক্তি।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড দ্য এক্সপ্রেস গত মাসে ফুটেজ বের করে। তাতে দেখানো হয়, ব্রিটিশ মডেল ও অভিনেত্রী কেটি প্রাইস ও তার প্রতিবন্ধী ছেলে হার্ভিকে ব্যঙ্গ করছেন স্টোকস।

এ ঘটনার পর থেকেই তোপের মুখে রয়েছেন ইংলিশ তারকা। শেষ পর্যন্ত নিজের কৃতকর্মের জন্য এভাবেই ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি, ‘আমি আসলে বোকার মতো ওই ক্লিপ অনুকরণ করতে গিয়েছি। আগে বেশ কয়েকবার দেখেছি। তবে আমার এটা করা উচিত হয়নি। আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি সত্যিকার অর্থেই ইচ্ছাকৃতভাবে কাউকে কষ্ট দিতে চাইনি। না হার্ভি, কেটি অথবা অন্য কাউকে।’

এরপরই স্টোকসের ক্রীড়া সামগ্রী স্পন্সর নিউ ব্যালেন্স চুক্তি বাতিল করে।

তারা পাল্টা বিবৃতি দিয়ে জানায়, স্টোকসের আচরণ তাদের ব্র্যান্ড ও সংস্কৃতির সঙ্গে যায় না। তাই ১১ অক্টোবর থেকে তার সঙ্গে সব চুক্তি বাতিল করছে নিউ ব্যালেন্স।

মারামারির ঘটনায় জড়িয়ে ইতিমধ্যে অ্যাশেজ সিরিজে তাকে নিয়ে সফর করছে না ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড।

print

LEAVE A REPLY