বিএনপির বিক্ষোভে পুলিশের ব্যাপক লাঠিচার্যঃ আহত ১০

ঝালকাঠি: বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশ লাঠির্চাজের ঘটনায় জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান খান বাপ্পিসহ অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

সোমবার বেলা ১১টায় শহরের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ বিএনপির এক নেতাকে আটক করে।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয় বিএনপি।

জেলা বিএনপির সভাপতি মোস্তফা কামাল মন্টু জানান, সকাল থেকেই ফায়ার সার্ভিস সড়কের জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে পুলিশ এসে ব্যারিকেড দিয়ে রাখে। নেতাকর্মীদের কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

সোমবার বেলা ১১টার সময় জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে এলে পুলিশ লাঠির্চাজ শুরু করে। লাঠিচার্জের কারণে বিএনপির কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়। এতে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান খান বাপ্পি, যুবদল নেতা রবিউল হোসেন তুহিন, ছাত্রদল নেতা জাহিদ হোসেন, ইয়াসিন আরাফাত মিঠু, বারেক হোসেন, মো. মঈন, শ্রমিক দল নেতা ফারুক হোসেন, মো. মামুনসহ অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয় বলে অভিযোগ করেন জেলা বিএনপির সভাপতি।

তিনি আরো বলেন, পুলিশ দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শহরের ৩ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেনকে আটক করে।

পুলিশ চলে যাওয়ার পর দলীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভে লাঠিপেটার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপির নেতারা। এ সময় বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি মিঞা আহমেদ কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম নুপুর প্রমুখ।

print

LEAVE A REPLY