রেডিওতে বাংরেজি বন্ধ করুন: তারানা হালিম

ঢাকা: মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম নির্দেশ দিয়েছেন, শুদ্ধ বাংলা ব্যবহার করে অনুষ্ঠান উপস্থাপনার জন্য দেশের রেডিও স্টেশনগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে তথ্য মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বাংলা ও ইংরেজির ভুল এবং বিকৃত উপস্থাপন না করতে শুক্রবার এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে প্রতিমন্ত্রী।

সম্প্রতি শোনা যাচ্ছে, দেশের রেডিও স্টেশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপস্থাপনার সময় বাংলা ও ইংরেজি মিলে বিকৃতভাবে ব্যবহার করা হয়, যেটি প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের দৃষ্টিতে ‘বাংরেজি’।

এ ব্যাপারে তারানা হালিম বলেন, বাংলা ও ইংরেজি মিলিয়ে যে ‘বাংরেজি’ ভাষা তৈরি হয়েছে, সেটি বন্ধ করতে বলেছি। বিভিন্ন রেডিও স্টেশনের বেশকিছু অনুষ্ঠানে আই নো, ইউ নো টাইপের শব্দ দিয়ে আধা ইংরেজি আধা বাংলা বলা হয়, যা বন্ধ হওয়া দরকার।

প্রতিমন্ত্রীর ভাষ্যে, ভাষার ক্ষেত্রে যারা এমন করছেন, তারা ঠিকমতো একটি ইংরেজি কিংবা বাংলা বাক্য বলতে পারবেন কিনা আমার সন্দেহ হয়।

আমি ফেরেশতা নই: তারানা হালিম
গতকাল নতুন ৩জনকে মন্ত্রী ও একজনকে প্রতিমন্ত্রী থেকে পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে শপথ করানোর পর আজ বুধবার মন্ত্রিসভায় ব্যাপক রদবদল করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমকে তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নতুন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়া নিয়ে তারানা হালিম বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের কাজ শেষ করে এনেছি। স্যাটেলাইট বিষয়ে মানুষের কোনো ধারণা ছিল না, থাকলেও ভ্রান্ত ধারণা ছিল। আমি সেই ধারণা সৃষ্টি করেছি এবং ভ্রান্ত ধারণা পাল্টে দিয়েছি।

এরকম পরিস্থিতিতে আমাকে সরিয়ে দেওয়াটা মানুষ হিসেবে একটু লাগে। আমি তো ফেরেশতা নই, অন্য কিছুও নই, আমি রক্তে-মাংসে গড়া মানুষ।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী থেকে তথ্য প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর বুধবার (৩ জানুয়ারি) তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তারানা হালিম এসব কথা বলেন।

তিনি প্রশ্ন করেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটসহ আমার হাতে সম্পন্ন করা জিনিসগুলো যখন প্রধানমন্ত্রী ব্যতীত অন্য কেউ উদ্বোধন করবেন, সেটি যখন আমি দেখব, আমার লাগাটা কি স্বাভাবিক নয়?

নতুন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব বিষয়ে তিনি বলেন, সামনের পথ কী হবে, আমি জানি না। এ নিয়ে আমি কিছু ভাবিনি, পরিকল্পনাও করিনি। গত দুই বছর সততার সঙ্গে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা পালন করেছি। প্রধানমন্ত্রীর মুখ উজ্জ্বল করার চেষ্টা করেছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, তারপরও আমি কৃতজ্ঞ আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনার ওপর। তিনি আমাকে দু’বার এমপি বানিয়েছেন, প্রতিমন্ত্রী বানিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে তার সেই বিশ্বাস এবং আশ্বাস রাখার চেষ্টা করেছি। তবে নতুন যে দায়িত্ব সেখানে আমার কী কাজ হবে, তা আমি জানি না। এ নিয়ে আমি কোনো পরিকল্পনাও করিনি।

print

LEAVE A REPLY