পাবনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষ, গোলাগুলিতে নিহত ১

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাবনা সদর উপজেলার চর ঘোষপুর গ্রামে দু’পক্ষে সংঘর্ষ বাধে। প্রায় ৩০ মিনিট ধরে চলা সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে রফিকুল ইসলাম নামে একজন নিহত হয়। আহত হয়েছে ২০ জন। গুরুতর আহত ১১ জনকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি আহতরা হল ইকবাল হোসেন (২৬), বিল্লাল হোসেন (৪০), ওয়াসিম হোসেন (২০), নজু প্রামাণিক (৪০), ফারুক হোসেন (২৫), রত্মা খাতুন (৩০), হাশেম আলী (৩০), পলাশ হোসেন (২২), আমিন উদ্দিন (২৪), জালাল উদ্দিন (৪০) ও রফিক হোসেন (১৭)।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। নিহত রফিকুল ইসলাম (৪৫) চর ঘোষপুর গ্রামের আজাহার আলী মণ্ডলের ছেলে।

পাবনা সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) হাফিজ উদ্দিন জানান, এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে চর ঘোষপুর গ্রামের তারেক ও আতিয়ার গ্রুপের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে দু’পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

প্রায় ৩০ মিনিট ধরে চলা সংঘর্ষ ও গোলাগুলিতে ২০ জন আহত হয়। এর মধ্যে গুরুতর আহত ১২ জনকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রফিকুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন।

এছাড়া ১১ জনকে ভর্তি করা হয়। হতাহত সবাই তারেক গ্রুপের সমর্থক। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে।

ওসি অপারেশন জানান, চর ঘোষপুরের পরিস্থিতি এখন শান্ত। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নিহতের পক্ষে শনিবার বিকালে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

print

LEAVE A REPLY