অ্যাটর্নি জেনারেল সময়মতো আদালতে না আসায় খালেদার জামিন শুনানি দুপুরে

ঢাকা: অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতে না আসায় কুমিল্লার নাশকতার মামলায় খালেদার জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি হয়নি। দুপুরে শুনানি হতে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এদিকে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা অভিযোগ করেছেন, কালক্ষেপণ করার জন্যই অ্যাটর্নি জেনারেল সময়মতো আদালতে আসেন নি।

কুমিল্লার হত্যা এবং নড়াইলে মানহানির একটি মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার করা জামিন আবেদনের ওপর মুলতবি শুনানি আজ আবারও শুরু হবার কথা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চে তৃতীয় দিনের মতো শুনানি হতে পারে। তবে অ্যাটর্নি জেনারেল সময়মতো আদালতে না আসায় নির্ধারিত সময়ে শুনানি হয়নি। খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আশা করছেন, দুপুর নাগাদ মামলাটির শুনানি হতে পারে।

এর আগে বুধবার দ্বিতীয় দিনের মতো শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এদিন প্রথমে জামিন আবেদনের পক্ষে অসমাপ্ত শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। তার বক্তব্য শেষে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি শুরু করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার বক্তব্য শেষ না হওয়ায় বৃস্পতিবার শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন আদালত।

এছাড়া গত মঙ্গলবার প্রথম দিনে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন খন্দকার মাহবুব হোসেন। তার বক্তব্য শেষ না হওয়ায় বুধবারের দিন ধার্য করেছিলেন আদালত।

আদালতের অনুমতি নিয়ে কুমিল্লায় হত্যা ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা দুটি এবং নড়াইলে মানহানির একটি মামলায় রবিবার হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

গত সোমবার তিনটির মধ্যে দুটি মামলার শুনানির জন্য কার্যতালিকায় ছিল। তবে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম প্রস্তুতির জন্য সময় চান। পরে আদালত জামিন আবেদনের বিষয়ে শুনানির জন্য মঙ্গলবার ধার্য করেন।

এর আগে গত ১৬ মে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে দেয়া হাইকোর্টের জামিন বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। তবে তার কারামুক্তির জন্য আরও ৬টি মামলায় জামিন নিতে হবে। পাশাপাশি ৪টি মামলায় হাজিরা পরোয়ানা প্রত্যাহারের প্রয়োজন রয়েছে।

print

LEAVE A REPLY