প্রবাস জীবন , মা আমি ভাল আছি, তুমি ভাল থেকো

জীবন মানেই যুদ্ধ আর সেই যুদ্ধে আমরা সবাই লড়াকু সৈনিক।

যত কষ্টই হোক আমরা পিছিয়ে পড়ব না। তাই একটা কথাই বলা যায় ‘হাল ছেড়ো না বন্ধু’।

প্রবাসে একাকি থাকা কি যে কঠিন তা আমি বুঝতে পরেছি আজ দুই তিন দিনে। অসুস্থ হয়ে পড়ে আছি। কিন্তু দেখার কেউ নেই।

হায়রে প্রবাস জীবন, এখানে সবাই ব্যস্ত যার যার কাজ নিয়ে। আজ মা পাশে থাকলে মাথায় পানি দিত, কপালে জলপট্টি দিত।

বলতো ‘বাবা, তুই কী খাবি?’ এখানে আমার খবর নেয়ার কেউ নেই।

তিন দিন ধরে জ্বর আর ঠান্ডাতে ভুগছি।

মাগো…. প্রবাসে কেউ কারও দুঃখ বোঝে না, না খেয়ে থাকলেও কেউ এসে বলে না ‘তুমি কি কিছু খেয়েছো?’

এখানে সারাদিন কাজ করে রাতে এসে নিজের খাবার নিজেকেই তৈরি করতে হয়।

আজ তোমাকে একটা কথা বলি মা, তুমি কেঁদো না। আমি রান্না করতে গিয়ে হাতটা পুড়িয়ে ফেলেছি। তাই একদিন সারারাত না খেয়ে থাকতে হয়েছে। এমন কত রাত যে না খেয়ে কাটিয়েছি। যখন কাজ ছিল না তখন রাস্তায় রাস্তায় ঘুরেছি কাজের জন্য, খাবারের জন্য।

মাঝে মাঝে যখন খুব ক্ষুধা পেত, পানি খেয়ে তখন রাত কাটাতাম। তারপরও তোমাকে জানতে দেইনি। কারণ তুমি জানলে কষ্ট পেতে, কান্না করতে। প্রবাস জীবনটা এমনি। মা তুমি ভালো থেকো, আমি যদি ভালো নাও থাকি তারপরও ভালো আছি মা, শুধু তোমার হাসি মুখটা ভেবে।

print

LEAVE A REPLY