পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ কমলনগরে যুবদল ও জামায়াতের দুই কর্মী গুলিবিদ্ধ

Lokkhipur
লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে হরতাল সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের কথিত বন্দুকযুদ্ধে জামায়াতকর্মী মাইন উদ্দিন (৩১) ও যুবদলকর্মী আরিফ হোসেন (২৫) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ছাড়া এ ঘটনায় কমলনগর থানার ওসি কবির আহাম্মদসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। গতকাল রবিবার রাত ১টার দিকে রামগতি-লক্ষ্মীপুর সড়কের কমলনগরের লরেন্স বেরার গোঁজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধ জামায়াতকর্মী মাইন উদ্দিন কমলনগর উপজেলার চরকালকিনি গ্রামের মৃত আবদুর রশিদের ছেলে ও আরিফ হোসেন চর জাঙ্গালিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত নুরুল হকের ছেলে। তাদের পুলিশি পাহারায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওসিসহ আহত পুলিশ সদস্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।
পুলিশ জানিয়েছে, রাতে যুবদল ও জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা রাস্তার পাশের গাছ কেটে সড়ক অবরোধ করে। এ সময় ওই সড়কে পুলিশ টহল দিচ্ছিল। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে টহল গাড়ি লক্ষ্য করে তারা পেট্রলবোমা ও ককটেল নিক্ষেপ করে। এ সময় তারা পুলিশের ওপর গুলি চালায়। আত্মরক্ষায় পুলিশও পাল্টা কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে জামায়াত ও যুবদলের দুই কর্মী গুলিবিদ্ধ হন। এ সময় অন্যরা পালিয়ে যান।
কমলনগর থানার এএসআই রেজাউল করিম জানান, গুলিবিদ্ধদের কাছ থেকে গাছ কাটার করাত ও চারটি পেট্রলবোমা উদ্ধার করা হয়। তাদের হামলায় থানার ওসি কবির আহাম্মদসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

print

LEAVE A REPLY