ঘাটাইলে দিনদুপুরে আইনজীবীকে খুন করে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ!

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে আপন চাচাতো ভাইয়ের হাতে খুন হয়েছেন ফরহাদ হেসেন নামে এক আইনজীবী। খুনের পর শফিকুল ইসলাম ওরফে রুবেল মিয়ার (২০) নামে ওই তরুণ স্থানীয় পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে।

শনিবার বিকাল সোয়া ৪টায় ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘীর বেতুয়াপাড়া গ্রামে (চেয়ারম্যানবাড়ির সঙ্গে) নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফরহাদ টাঙ্গাইল জজকোর্টের আইনজীবী ছিলেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হেকমত শিকদার যুগান্তরকে জানান, নিহত অ্যাডভোকেট ফরহাদ হোসেন সাগরদিঘী বেতুয়াপাড়া গ্রামের হাফেজ উদ্দিনের ছেলে।

বিকালে সোয়া ৪টার দিকে ফরহাদ ও রুবেল একসঙ্গে দুপুরের খাবার খান। ফরহাদ হোসেনের আগে রুবেল খাওয়া শেষ করে হঠাৎ অতর্কিতভাবে হামলা করে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মৃত্যু হয় তার।

তবে স্থানীয়রা ধারণা করছে, জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল তাদের। সেই বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

সাগরদিঘী তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ মোশারফ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, খুন করার পর তদন্তকেন্দ্রে এসে জানায় আমি আমার ভাইকে খুন করে এসেছি, আমাকে ফাঁসি দেন। এ কথা বলার পর তাকে আটক করা হয়।

ঘাটাইল থানার ওসি মো. মাকসুদুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে যুগান্তরকে জানান, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।

print

LEAVE A REPLY