উচ্চমহলের প্রভাবই শুধু নয়, দক্ষতারও অভাব

বাংলাদেশ ব্যাংক কতটা সফলভাবে কাজ করতে পারছে, তা বারবারই প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে৷ দু’রকমের অভিযোগ আছে এখানে৷ প্রথমত, প্রতিষ্ঠানটিকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেয়া হচ্ছে না৷ দ্বিতীয়ত, এখানে দক্ষতার অভাব রয়েছে৷
সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ে দু’টি আলোচিত ঘটনা হলো রিজার্ভ চুরি এবং ভল্টের সোনায় হেরফের৷ রিজার্ভ চুরির ঘটনার তদন্ত এখনো চলছে৷ কিছু অর্থ ফেরত পাওয়া গেলেও সিংহভাগের ভবিষ্যত অনিশ্চিত৷ আর সোনায় হেরফেরের বিষয়টি স্বীকারই করছে না বাংলাদেশ ব্যাংক৷ কিন্তু সোনায় হেরফেরের ঘটনা উদঘাটন করেছে সরকারেরই আরেকটি প্রতিষ্ঠান জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) শুল্ক ও গোয়েন্দা বিভাগ৷

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনা ঘটে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে৷ এই ঘটনার জেরে ব্যাংকের তখনকার গভর্নর ড. আতিউর রহমানকে পদ ছাড়তে হয়৷ হ্যাকাররা ভুয়া ট্রান্সফার অর্ডার ব্যবহার করে নিউ ইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ থেকে সুইফট কোডের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার অর্থ হাতিয়ে নেয়৷ এর মধ্যে দুই কোটি ডলার চলে যায় শ্রীলঙ্কা এবং ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চলে যায় ফিলিপাইন্সের ক্যাসিনোতে৷

২০১৬ সালের নভেম্বরে ফিলিপিন্স বাংলাদেশ ব্যাংককে প্রায় দেড় কোটি ডলার ফেরত দিয়েছে৷ আট কোটি ১০ লাখ ডলারের মধ্যে সাড়ে কোটি ডলারেরও বেশি অর্থ এখনও ফেরত আনা সম্ভব হয়নি৷ এই চুরি নিয়ে থানায় যে মামলা হয়েছে তার প্রতিবেদন বা তদন্ত প্রতিবেদন এখনো দেয়নি সিআইডি৷ আর সরকারের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনও আলোর মুখ দেখেনি৷ যার ফলে বাংলাদেশ কেন সারা বিশ্বে আলোচিত রিজার্ভ চুরির ঘটনায় প্রকৃতই বাংলাদেশের কারা জড়িত তা প্রকাশ এবং তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়নি দুই বছরেও৷ মিউচুয়াল লিগ্যাল অ্যাসিসটেন্স রিকোয়েস্টর মাধ্যমে ফিলিপাইন্সের ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিস-এ বাংলাদেশ একটি মামলা করে অর্থ ফেরত আনার জন্য৷ সেই মামলাও কবে নিস্পত্তি হবে নিশ্চয়তা নেই৷

রিজার্ভ চুরির পর এবার বাংলাদেশ ব্যাংক সমালোচনার মুখে পড়েছে ভল্টে রাখা স্বর্ণের হেরফের নিয়ে৷ চাকতিকে শতকরা ৮০ ভাগ সোনা ৪০ ভাগ হয়ে যাওয়া, ২২ ক্যারেটের সোনা ১৮ ক্যারেট হওয়া নিয়ে চলছে বিতর্ক৷

সরকারের শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভল্টে জমা রাখা ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম ওজনের সোনার চাকতি ও আংটি মিশ্র বা সংকর ধাতু হয়ে গেছে৷ সেখানে শতকরা ৮০ ভাগ স্বর্ণ ছিল৷ পরে সেখানে শতকরা ৪০ ভাগ স্বর্ণ পাওয়া গেছে৷ আর ২২ ক্যারেট সোনা, হয়ে গেছে ১৮ ক্যারেট৷

print

LEAVE A REPLY