নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

নোয়াখালী সদর উপজেলায় ইউপি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে বিএনপির নেতাকর্মীরা মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে মাথা থেঁতলে গুলি করে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের প্রার্থী এমপি একরামুল করিম চৌধুরী সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি করেন। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে একই আসনে বিএনপিপ্রার্থী ও কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান দাবি করেন, দলীয় অন্তর্কোন্দলে আওয়ামী লীগ নেতা হানিফ খুন হয়েছেন।

এমপি বলেন, মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলা কালাদরাফ ইউনিয়নের নুরু পাটোয়ারীর হাটের পূর্ব পাশে এওজবালিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ শুল্লকিয়া গ্রামের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ (২৪), মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়িতে যাচ্ছিলেন।

কিছু দূর যেতেই বাজারে বিএনপির নির্বাচনী সমাবেশ থেকে এওজবালিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাজাহানের নেতৃত্বে দলের কর্মীরা হানিফের গতিরোধ করে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে মাথা থেঁতলে পায়ে গুলি করে।

এ সময় হানিফের চিৎকারে পাশের লোকজন ছুটে এলে বিএনপির নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ হানিফকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথেই মৃত্যু হয় তার।
এমপিপ্রার্থী একরামুল করিম চৌধুরী আরও দাবি করেন, একই উপজেলায় নোয়ান্নই ইউনিয়নের বিএনপির কর্মীরা ইউপি আওয়ামী লীগের সদস্য মো. জহিরের (২৮) মাথায় গুলি করে আহত করে। গুলিবিদ্ধ জহিরকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।
নিহত হানিফ এওজবালিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ শুল্লকিয়া গ্রামের হাফিজ উল্লার ছেলে।ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগের কর্মী গুলিবিদ্ধ মো. জহির নেয়াজপুর ইউনিয়নের বারাইপুর গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে বলে জানান তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শিহাব উদ্দিন শাহনি, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মমিন উল্লা বিএসসি, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু এবং সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র মো. শহিদ উল্যাহ খান সোহেল প্রমুখ।

print

LEAVE A REPLY